মেইন ম্যেনু

সবুজ উইকেটে শ্রীলংকার পরীক্ষা

বিশ্বকাপের আগে বাউন্সি উইকেটে প্রস্তুতির দারুন এক সুযোগ পাচ্ছে শ্রীলংকা। আগামী ফেব্রুয়ারি-মার্চেই অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপের ১১তম আসর। তার আগেই বক্সিং ডেতে ক্রাইস্টচার্চে শুরু হচ্ছে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শ্রীলংকার ২ ম্যাচের টেস্ট এবং ৭ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ।

ক্রাইস্ট চার্চে অবশ্য অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজদের জন্য সবুজ ফাঁদ পেতেই অপেক্ষা করছেন ব্রেন্ডন ম্যাককুলামরা। টিম সাউদি, ট্রেন্ট বোল্ট, ডগ ব্রেসওয়েল এবং নেইল ওয়াগনররা অপেক্ষায় আছেন সেই সুবজ ফাঁদে ঝড় তোলার।

সিরিজের ফল যাই হোক না কেন, বিশ্বকাপের আগে এটা দারুন একটা প্রস্তুতি হয়ে থাকবে লংকানদের জন্য। বিশেষ করে বাউন্সি উইকেটে বাউন্সার মোকাবেলা করার অভিজ্ঞতা অর্জন হয়ে যাবে লংকান ব্যাটসম্যানদের।

এক সময় নিউজিল্যান্ডের মাটিতে খেলতে এসে বেশ সংশয়ে থাকতে হতো শ্রীলংকাকে। কিন্তু এখন আর সে চিন্তা নেই। শ্রীলংকা আগের চেয়ে অনেক বেশি পরিণত। তার ওপর, নিজ দেশের মাটিতেই সফরকারী ইংল্যান্ডকে ৭ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে হারিয়েছেন ৫-২ ব্যবধানে। সাঙ্গাকারা-মাহেলা জয়াবর্ধনেরা রয়েছেন দুর্দান্ত ফর্মে।
লংকান দলটিতে তারুন্যের সমন্বয়ই এখন সবচেয়ে বেশি। যদিও চলতি বছর দুবাই, ঢাকা, হেডিংলিতে তারা প্রমান করেছে কতটা পরিণত শ্রীলংকা।

উল্টো দিকে নিউজিল্যান্ডও রয়েছে এখন দারুন ফর্মে। যদিও শেষ টেস্ট সিরিজে তারা পাকিস্তানের সঙ্গে খুব বেশি ভালো করতে পারেনি। তবে ওয়ানডে সিরিজে ৩-২ ব্যবধানে হারিয়েছে আফ্রিদি-মিসবাহদের। কেনে উইলিয়ামসন, রস টেলররা রয়েছেন দারুন ফর্মে।






মন্তব্য চালু নেই