মেইন ম্যেনু

শ্রীদেবীর জীবনের অন্ধকার এক গোপন অধ্যায়, যা আপনার জানা নেই!

বলিউডের লাস্যময়ী অভিনেত্রী শ্রীদেবীর সফল ক্যারিয়ার সম্পর্কে তো জানেন। এই অভিনেত্রী যে নামী প্রযোজক বনি কাপুরের স্ত্রী এবং দুটি অসাধারণ কন্যার আদর্শ মা, এও জানেন সবাই। তবে বলিউডের সুন্দরী এই অভিনেত্রীর জীবনে যে এসেছিল একাধিক পুরুষ, তা কি আপনি জানেন? একে তো তারকা, তারওপর সুন্দরী। জীবনে তাঁর একাধিক পুরুষ আসতেই পারে। তবে কেবল প্রেমেই সাড়া দিয়ে ক্ষান্ত ছিলেন না এই অভিনেত্রী, পালিয়ে বিয়েও করেছেন। আর বনি কাপুর তার জীবনের প্রথম পুরুষ নন, এর আগেও এই অভিনেত্রীর হৃদয়পটে ছবি এঁকেছিলেন আরেক সুদর্শন পুরুষ।

আসল কাহিনীতে আসার আগে বনি কাপুরের সাথে শ্রীদেবীর প্রেম কাহিনীটি একঝলক দেখে নেয়া প্রয়োজন। ১৯৮৪ সালে মিঃ ইন্ডিয়া সিনেমাটির প্রধান নায়িকা চরিত্রের প্রস্তাব নিয়ে বনি কাপুর যান শ্রীদেবীর কাছে। সিনেমার কাজের গতির ন্যায় শ্রীদেবীর প্রতি বনির ভালোবাসা গভীর হতে থাকে। হরিণী চোখের অধিকারিণী রূপসী নায়িকা শ্রীদেবীর মনটি খুব সহজেই পেয়ে গিয়েছিলেন এমনটা ভাবার কোন কারণ নেই। শ্রীদেবীর প্রতি বনি কাপুরের ভালোবাসা প্রথম দিকে একতরফা হলেও ধীরে ধীরে বনি কাপুরের ভালবাসায় সাড়া দিতে থাকেন শ্রীদেবী।

অতঃপর শ্রীদেবী সম্পর্কে সব কথাই বনি কাপুর তার প্রথম স্ত্রীকে খুলে বলেন এবং ১৯৯৩ সালে প্রথম স্ত্রীর সাথে সম্পর্কের ইতি টেনে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রস্তাব দেন শ্রীদেবীকে। এবং ১৯৯৬ সালে ছোট এবং অনেকটা গোপনীয়তার সাথেই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন এই তারকা জুটি। তবে এই টুকুনই নাকি এর পেছনেও অন্য রহস্য। বা এমন এক অধ্যায় যা আপনার অজানা।

এবার আসা যাক আসল কাহিনীতে, শ্রীদেবীর জীবনের প্রথম পুরুষটি আর কেউ নন বলিউডের সেই সময়ের সুদর্শন হিরো মিঠুন চক্রবর্তী। আশির দশকে ‘Jaag Utha Insan’ সিনেমায় কাজ করতে করতে দুজনার মধ্যে প্রেমের সম্পর্কের শুরু হয়। এই নায়কের সাথে প্রেমের সম্পর্ক এতোটাই গভীর ছিল যে দুজনে একসাথে ঘর বাধার স্বপ্নও দেখেছেন। এবং জানলে অবাক হবেন যে অনেক গোপনে এবং মিডিয়ার চোখের আড়ালে পরিবারে অগোচরে বিয়ের কাজটিও সেরে ফেলেন তারা।

তবে কোন এক কারণে শ্রীদেবীর প্রতি মিঠুনের সন্দেহ জাগতে থাকে। বনি কাপুরের সাথে প্রেমের সম্পর্ক আছে এমন সন্দেহ থেকে শ্রীদেবীকে বাধ্য করেন বনিকে রাখি পরাতে। এবং আজকের স্বামী বনি কাপুরকেই এক সময় ভাই বানিয়ে রাখি পরিয়েছিলেন এই অভিনেত্রী। এতেও যেন মিঠুনের শান্তি হল না, সন্দেহ থেকেই শ্রীদেবীর সাথে সম্পর্কের বিচ্ছেদ ঘটান। আর তাই খবরে পরিণত হতে হতেই মিঠুনের সাথে শ্রীদেবীর বিয়েটি ভেঙে যায়।

এবং সেই সময়ে বনি কাপুরের সাথে বিয়ের প্রস্তাবে রাজি হয়ে যান এই তারকা। কিন্তু অবাক করা বিষয় হল, বনি কাপুরের সাথে বিয়ের পিঁড়িতে বসার আগেই এই অভিনেত্রী গর্ভবতী ছিলেন। এবং এই খবরে বলিউডে আলোচনার ঝড় উঠতে উঠতেই বেরিয়ে আসে আরেকটি চাঞ্চল্যকর খবর। ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যম মিঠুন আর শ্রীদেবীর ম্যারেজ সার্টিফিকেট প্রকাশ করে দেন। এরপরেই সকলের মনে প্রশ্ন জাগতে শুরু করে তবে শ্রীদেবী কি মিঠুন চক্রবর্তীর সন্তানকে গর্ভে নিয়েই বনি কাপুরের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন? নাকি মিঠুনের স্ত্রী থাকা অবস্থাতেই তিনি পরকীয়া করছিলেন বনি কাপুরের সাথে আর সেটা জানতে পেরেই তাঁকে ছেড়ে যান মিঠুন?

তবে সেই প্রশ্নে না গেলেও এতটুকু পরিস্কার যে বনি কাপুর শ্রীদেবীকে ভালোবেসে বিয়ে করলেও শ্রীদেবী অনেকটা দোটানায় পড়েই বনি কাপুরের প্রস্তাবে রাজি হন।






মন্তব্য চালু নেই