মেইন ম্যেনু

শ্যালিকার সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক, অতঃপর…

স্ত্রীর ছোট বোনের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের জের ধরে খুন হলেন শাশুড়ি। শাশুড়ির অনুপস্থিতিতে শ্যালিকার সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হয় জামাইয়ের। একদিন আপত্তিকর অবস্থায় তা ধরা পড়ে শাশুড়ির কাছে।

এই ঘটনার পর মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে থানায় জামাইয়ের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেন ওই নারী। এরপর জামাইয়ের পক্ষ থেকে আসতে থাকে হুমকি-ধমকি। মামলা তুলে নিতে চাপ প্রয়োগ করে। কিন্তু মামলা তুলে না নেওয়ায় শেষ পর্যন্ত খুন হতে হলো শাশুড়িকে।

ভারতের নয়াদিল্লির নারেলা অঞ্চলে এই নৃশংস হত্যাকাণ্ড ঘটেছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের এক খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

দীনেশ নামে ওই ধর্ষক জামাই গত বুধবার শাশুড়ির বাড়িতে গিয়ে মামলা তুলে নিতে হুমকি দিতে থাকে। তার সঙ্গে ছিল আরো দু-তিনজন গুণ্ডা। শাশুড়ির সঙ্গে বাগ্‌বিতণ্ডার একপর্যায়ে পকেটে থাকা পিস্তল বের করে জামাই দীনেশ গুলি করলে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন ওই নারী। এতে তার মৃত্যু হয়।






মন্তব্য চালু নেই