মেইন ম্যেনু

লজ্জা থাকলে হরতাল ডাকবেন না : হাছান মাহমুদ

গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে বাম দলগুলোর ডাকা হরতাল জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে দাবি করে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেছেন, লজ্জা থাকলে তারা আর হরতাল ডাকবে না।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক সমাবেশে হাছান মাহমুদ এ মন্তব্য করেন।

‘স্কুল-কলেজ, রাস্তাঘাটে মানুষের উপস্থিতি দেখলে কেউ বলবে না, আজকের হরতাল ডাকা হয়েছে। দেশের মানুষ সম্পূর্ণভাবে এ হরতাল প্রত্যাখ্যান করেছে। যাঁরা হরতাল ডেকেছেন, তাঁদের যদি লজ্জা থাকে, তাহলে তাঁরা আর এই ইস্যুতে কথা বলবেন না।’

‘বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ’ নামে একটি সংগঠনের ব্যানারে হরতালবিরোধী এই মানববন্ধনে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘এই হরতালে সমর্থন দিয়েছে জামায়াতে ইসলামী, খেলাফত মজলিস। এ ছাড়া বাংলাদেশ জাতীয়বাদী দল (বিএনপি)। জঙ্গিগোষ্ঠী, স্বাধীনতাবিরোধী, প্রতিক্রিয়াশীল—তাঁরা সবাই এই হরতালে সমর্থন দিয়েছেন।’

‘এই জঙ্গিগোষ্ঠী, স্বাধীনতাবিরোধী, প্রতিক্রিয়াশীলদের সঙ্গে হরতাল আহ্বানকারীরা ঐক্য করেছে। বাংলাদেশের জনগণ যেভাবে জঙ্গিগোষ্ঠী, স্বাধীনতাবিরোধীদের প্রত্যাখ্যান করেছে, আজকের হরতাল আহ্বানকারীদেরও সেইভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে’, যোগ করেন হাছান।

বাম দলগুলোর দিকে ইঙ্গিত করে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আপনারা সাম্যভিত্তিক সমাজব্যবস্থার কথা বলেন। কিন্তু যাঁরা মাসে তিন হাজার টাকার গ্যাস ব্যবহার করেন, তাঁদের পাশে না দাঁড়িয়ে যাঁরা উপকারভোগী-সুবিধাভোগী, তাঁদের পাশে দাঁড়িয়েছেন।’

ভারত-পাকিস্তানেও গ্যাসের দাম বাংলাদেশের চেয়ে বেশি উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বলেন, ‘পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত, পাকিস্তানেও দেশের গ্যাসের দামের চেয়েও কম। আপনারা যাচাই করেন, চ্যালেঞ্জ করছি, বাংলাদেশে গ্যাসের দাম মূল্যবৃদ্ধির পরও পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত ও পাকিস্তানের চেয়ে গ্যাসের দাম কম আছে।’

সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, আওয়ামী লীগ নেতা বলরাম পোদ্দার, স্বাধীনতা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই