মেইন ম্যেনু

রৌমারীতে সড়কের একি হাল !

ছোট-বড় গর্তে ভরা সড়ক। এসব গর্তে পড়ে গাড়ি চলে হেলেদুলে। আর যাত্রীদের প্রাণ যায় যায় অবস্থা! সামান্য বৃষ্টি হলে তো গর্ত আর গর্ত
থাকে না, পরিণত হয় ডোবায়। রৌমারী সিয়াম কাউন্টার – উপজেলা মোড় পর্যান্ত সড়কের এমনই বেহাল দশা এখন। দেখার যেন কেউ নেই। জানা যায়, রৌমারী সিয়াম কাউন্টার থেকে উপজেলা মোড় পর্যান্ত সড়কে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

৭ বছর ধরে সড়কটির এমন অবস্থা হলেও এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তর নির্বিকার। ফলে দিন দিন মানুষের দুর্ভোগ বেড়েছে। সাবেক রৌমারী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজা মিয়া রিপন মোবাইল ফোনে জানান, এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন হাটবাজার আসা মানুষদেরকে নিত্য যাতায়াত করতে হয়। প্রতিদিন এখানকার হাজারো মানুষ উপজেলা সদর বাজারে আসা-যাওয়া করেন। এ ছাড়া চলাচল করে মালবাহী ট্রাক, রিকশা সিএনজি চালিত অটোরিকশা ও ভ্যান।

সরেজমিনে দেখা গেছে, বড় গর্তে জমে আছে পানি। দূর থেকে মনে হচ্ছে ডোবা। এর ওপর দিয়ে চলাচল করছে গাড়ি। মালবাহী ট্রাক যাওয়ার সময় কাদাপানিতে একাকার হয়ে যাচ্ছে আশপাশ। সিএনজিচালিত অটোরিকশা, ভ্যান ও রিকশা গর্তের কারণে সড়ক ছেড়ে
আশপাশের দোকানঘরের একেবারে পাশ ঘেঁষে চলাচল করছে। রৌমারী বাজারের কাপড় ব্যবসায়ী আনিছুর রহমান বলেন, ‘এত বড় বড় গর্ত উপজেলার কোনো সড়কে নেই।

মানুষের এত কষ্ট হলেও এ নিয়ে কারও মাথাব্যথা নেই।’ জানতে চাইলে রৌমারী উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী বলেন, এলজিইডির নিয়ন্ত্রণে নয়, এই রাস্তাটি রোড অ্যান্ট হাইওয়ে টির্পাটমেন্টের নিয়ন্ত্রণে। আমি এই ব্যাপারে জানিনা।

এ ব্যাপারে রৌমারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল হান্নানের মোবাইল ফোন বন্দ থাকায় যোগাযোগ করকে পারিনি।






মন্তব্য চালু নেই