মেইন ম্যেনু

রেলওয়ের কেন্দ্রীয় লোকোমোটিভ কারখানায় অগ্নিকান্ড

পার্বতীপুর কেন্দ্রীয় লোকোমোটিভ কারখার পাওয়ার কনট্রাকটর ও লোট বক্স সেকশনে বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে ওই সেকশনের ইলেকট্রিক সামগ্রী পুড়ে যায়।
ঘটনার পরপরেই কারখানার নিজস্ব ফায়ার সার্ভিস ও পার্বতীপুর ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌছে সন্বলিত প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। এতে রক্ষা পায় ওই সেকশনে থাকা একটি নতুন রেল ইঞ্জিনসহ কোটি কোটি টাকার যন্ত্রাংশ। দূর্ঘটনা তদন্তে কারখানার সহকারী ওয়ার্কস ম্যানেজার এম ফজলে রব কে আহবায়ক করে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অপর সদস্যরা হলেন কারখানার সহকারী ওয়ার্কস ম্যানেজার গোলাম আজম ও উপ-সহকারী প্রকৌশলী তড়িৎ মো. আক্তারুজ্জামান।
জানা যায়, বিদেশ থেকে আমদানী করা এবং ওই কারখানায় হেভি মেরামত করা রেল ইঞ্জিনগুলো লোড বক্স সেকশনে এনে শক্তি পরীক্ষা করা হয়। পরে ইঞ্জিনগুলো রেলপথে চলাচলের জন্য ছাড় পত্র দেওয়া হয় কারখানা থেকে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে ব্রোড গেজ লাইনের ৬৫২৪ নং ইঞ্জিনটির লোড পরীক্ষা করার সময় ইলেকট্রিক্যাল গ্রিড রেজিস্টারে আগুন ধরে যায়।
কারখানার প্রধ্না নির্বাহী মৃণাল কান্তি বণিক বলেন, কারখানায় ২২ বছর আগে ইঞ্জিনের লোড পরীক্ষার জন্য সেকশনটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। দীর্ঘ দিনে ওই সেকশনটিতে কমপক্ষে সাড়ে ৪’শ ইঞ্জিনের লোড পরীক্ষা করা হয়েছে। পুরাতন সেকশনের কারনে বৈদ্যুতিক লোড দিতে গিয়ে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান সেকশনটি পরীক্ষা না করে বলা সম্ভব নয়। দেশীয় টেকনিশিয়ান দ্বারাই আমরা সেকশনটি পুনরায় মেরামত করতে সক্ষম হবো।






মন্তব্য চালু নেই