মেইন ম্যেনু

রায় নিজেদের পক্ষে না এলে ব্যাপক আন্দোলনের প্রস্তুতি জামায়াতের

মানবতা বিরোধী অপরাধের মামলাগুলোর রায় নিজেদের পক্ষে আনার জন্য বিভিন্ন সময় রাজপথ সক্রিয় ছিলো জামায়াতে ইসলামী। ঈদ পরবর্তী আরেক দফা আন্দোলন করতে ব্যাপক প্রস্তুুতি নিচ্ছে তারা। আন্দোলন সফল করতে কর্মীদের সংঘটিত করা সহ প্রয়োজনীয় অর্থেরও জোগান করছেন তারা।

খবরে প্রকাশ, সরকারের দমন-নিপীড়নের মাঝেও থেমে নেই জামায়াতের সাংগঠনিক কার্যক্রম। ঈদ পরবর্তী সরকারবিরোধী আন্দোলনের লক্ষ্যে ইতোমধ্যে প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে জামায়াত। নানা কৌশলে দলটি আন্দোলনের প্রস্তুতি নিয়েছে। গোটা রমজান মাসে ইফতার মাহফিলের মাধ্যমে দলের অবস্থান ও সার্বিক অবস্থা বিভিন্ন শ্রেণির মানুষের কাছে তুলে ধরছে জামায়াত। ইতোমধ্যে কেন্দ্রীয় জামায়াত কয়েকটি ইফতার মাহফিল সম্পন্ন করেছে। গত ৩ জুলাই বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও বিশিষ্টজনদের সম্মানে ইফতার মাহফিল করে দলটি। ৯ জুলাই রাজনীতিকদের নিয়ে ইফতার করেছে জামায়াত। ওই ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

রমজানে আন্দোলনের পূর্ববর্তী প্রস্তুতি হিসেবে সংগঠনটি ইতোমধ্যে অর্থ সংগ্রহ, সাংগঠনিক মানোন্নয়ন ও জোরালো আইনি প্রক্রিয়ায় মামলা থেকে নেতা-কর্মীদের জামিন করানোসহ বেশ কিছু কাজ সম্পন্ন করেছে। এছাড়া যুদ্ধাপরাধ মামলায় আটক দলের শীর্ষ নেতাদের মামলার রায় ঘোষণা করা হলে, রায় নিজেদের পক্ষে না আসলে সেক্ষেত্রেও ব্যাপক আন্দোলনের প্রস্তুতি রয়েছে দলটির। আর সরকারের সঙ্গে সমঝোতার বিষয়ে দলটির নেতারা বলছেন- এটি স্রেফ অপপ্রচার।






মন্তব্য চালু নেই