মেইন ম্যেনু

রাষ্ট্রপতি জনগণের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন : মির্জা ফখরুল

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুন সংলাপের কথা বলেছিলেন। অথচ রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ জাতিসংঘের মহাসচিবকে বলেছেন, বাংলাদেশের জনগণ ৫ জানুয়ারির নির্বাচন মেনে নিয়েছে। মেয়াদ শেষে সংলাপ হবে একথা বলে তিনি জনগণের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন।’

শনিবার সকালে নয়াপল্টনস্থ হোটেল ভিক্টোরির হলরুমে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কেন্দ্রীয় রাজনৈতিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্যোগে ‘বিএনপি রাজনৈতিক কর্মশালা-৮ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি একটা আস্থার জায়গা। তিনি সে আস্থা হারিয়েছেন। জনগণের কথা না বলে দলীয় কথা বলে আসলেন। তার এ বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘আদালতের রায় দিয়ে অনেক কিছু হতে পারে। রাজনীতি হতে পারে না। রাজনীতিকে শুধু রাজনীতি দিয়ে মোকাবেলা করা যায়। ৫ জানুয়ারির নির্বাচন কীভাবে হয়েছে তা দেশ বিদেশের সবাই দেখেছে। তাতে আদালতের দরকার নেই।’

ফখরুল বলেন, ‘আওয়ামী লীগের রাজনীতি বিভক্তের রাজনীতি। মনে হচ্ছে আওয়ামী লীগ একদিকে আর অন্য সবাই একদিকে। মানুষের কোথাও নিরাপত্তা নেই। এখন নদীতে লাশ, রাস্তার পাশে লাশ, সর্বত্রই লাশ পাওয়া যাচ্ছে। আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মানুষ মারছে। সবাই অজানা আতঙ্কে ভুগছে।’

বিএনপির এ মুখপাত্র বলেন, ‘বাংলাদেশের যা কিছু ভালো সবই জিয়াউর রহমানের অবদান। দেশের সব মানুষকে শিক্ষার্থী করার জন্য জিয়াউর রহমান উদ্যোগ নিয়েছিলেন। দেশকে স্বনির্ভর করার জন্য তিনি মহিলা ও কৃষি মন্ত্রণালয় গঠন করেছিলেন।’

সরকারের সমালোচনা করে ফখরুল বলেন, ‘সুইস ব্যাংকে অন্যান্য দেশের গ্রাহকদের টাকা কমেছে আর বাংলাদেশের গ্রাহকদের টাকা বেড়েছে । সরকারের লোকেরা দুর্নীতি করেছে, তারাই এ ব্যাংকে টাকা জমা করেছে। এ সরকারের আমলে বিনিয়োগ ব্যবসা বাড়েনি, কিন্তু চুরি বেড়েছে।’

কর্মশালায় প্রশিক্ষণ দান করবেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন এবং বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক ড. মাহবুব উল্লাহ।

কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন- বিএনপির প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক কাজী আসাদুজ্জামান এবং কর্মশালা পরিচালনা করেন বিএনপির প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক কবীর মুরাদ।

প্রশিক্ষণ কর্মশালায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০ জন শিক্ষার্থীকে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই