মেইন ম্যেনু

যুবরাজকে ‘পাজি’ বললেন ধাওয়ান !

ভারতীয় ক্রিকেট দলে এখন বড় উপেক্ষার নাম যুবরাজ সিং! ছিলেন না ১১তম বিশ্বকাপে ভারতের দলে। সুযোগ পাননি আসন্ন বাংলাদেশ সফরেও। সদ্যসমাপ্ত আইপিএলের অষ্টম আসরে অবশ্য নিজেকে প্রমাণ করতে পারেননি যুবরাজ।

অপরদিকে ভারতীয় দলে বর্তমানে অন্যতম ভরসার নাম শিখর ধাওয়ান। বছর দুয়েক ধরে দলের নিয়মিত সদস্য তিনি। রয়েছেন বাংলাদেশের বিপক্ষে স্কোয়াডেও। নিজের সেরাটা ঢেলে দিতে মুখিয়ে আছেন ধাওয়ান। বাংলাদেশ সফরে আসার আগে তিনি জানালেন, আন্তর্জাতিক মঞ্চে সফল হওয়ার জন্য যুবি ‘পাজি’ তার আদর্শ।

পাজি শব্দটি বাংলা ভাষায় নেতিবাচক অর্থ বুঝায়। কিন্তু হিন্দি ভাষায় শিখ সম্প্রদায়ের সিনিয়র কাউকে সম্মানার্থে এই শব্দটি ব্যবহার করা হয়। এ ছাড়া বড় ভাইকে সম্মোধন করতেও এ শব্দের ব্যবহার রয়েছে। ভারতের তারকা ক্রিকেটার যুবরাজ সিং শিখ সম্প্রদায়েরই লোক। তাই সম্মানার্থে যুবরাজকে ‘পাজি’ বলতেই পারেন ধাওয়ান।

২০১১ বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় যুবরাজ সিংয়ের প্রশংসায় ২৯ বছর বয়সি শিখর ধাওয়ান বলেন, ‘সত্যি বলতে যুবি পাজি (যুবরাজ সিং) আমার কাছে অনুপ্রেরণা। তিনি যেভাবে বলটা মারেন। সেটা দারুণ লাগে। মনে হয়, অন্য কেউ সেটা পারে না। এটাই আমাকে অনুপ্রেরণা যোগায়। এ ছাড়া বোলাররা তার উইকেটটি নেওয়ার জন্য মাথার চুল ছিড়ে ফেলে! তাই সতীর্থদের থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। আন্তর্জাতিক মঞ্চে সফল হওয়ার জন্য যুবি আমার আদর্শ।’

ক্যারিয়ারের উত্থান-পতন নিয়ে গল্প শোনালেন ভারতের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ধাওয়ান, ‘ক্যারিয়ারে সাফল্যের চেয়ে ব্যর্থতা দেখেই আমি অভ্যস্ত। এখন আমি সফল ক্রিকেটার হয়েছি! কিন্তু খারাপ সময় প্রত্যেকেরই দেখতে হয়। ৬০টা ম্যাচ খেলে মাত্র আটটি সেঞ্চুরি করেছি। এটাই ক্রিকেট! অনেকে নিজেদের খারাপ ফর্ম নিয়ে খুব বেশি ভাবনা-চিন্তা করে। আমি কিন্তু সেই দলে নেই। ধৈর্য্য ধরে সেগুলোকে অতিক্রম করার চেষ্টা করি।’

বাংলাদেশ সফর নিয়ে ধাওয়ান বলেন, ‘প্রত্যেকটা সফরের জন্যই আমি আলাদা করে ভাবি। নিজের ফিটনেস নিয়েও বেশ খাটছি।’






মন্তব্য চালু নেই