মেইন ম্যেনু

মোস্তাফিজ-তাসকিনের জোড়া আঘাতে স্বস্তিতে বাংলাদেশ

সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ম্যাচে শুরুতেই বাংলাদেশকে সাফল্য এনে দিয়েছিলেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। তারপর কুশল মেন্ডিসের সেঞ্চুরিতে চাপে পড়ে টাইগাররা। তবে মোস্তাফিজ, তাসকিনের জোড়া আঘাতে স্বস্তি ফেরে সফরকারি দলে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৪ উইকেটে ২৩৬ রান করেছে শ্রীলঙ্কা। আসেলা গুনারত্নে ৯ এবং মিলিন্দা সিরিবর্ধনে ১৪ রানে অপরাজিত আছেন।

মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) ডাম্বুলায় নিজেদের ২০০তম ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক উপল থারাঙ্গা। ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারে ৯ রান নিয়ে দারুন শুরুর ইঙ্গিত দিয়ে ছিল লঙ্কান দুই ওপেনার। তবে মাশরাফি তার দ্বিতীয় ওভারেই ওপেনার দানুশকা গুনাথিলাকে আউট করে লঙ্কানদের টাইগারদের প্রথম সাফল্য এনে দেন। মুশফিকের তালুবন্দি হয়ে সাঝঘরে ফেরার আগে ১১ বলে ৯ রান করেন দানুশকা।

শুরুতেই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে শ্রীলঙ্কা। তবে কুশল মেন্ডিস আর উপুল থারাঙ্গার সতর্ক ব্যাটিংয়ে শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে উঠেছে স্বাগতিকরা। ১৮ রানে প্রথম উইকেট হারানোর পর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ১১১ রানের জুটি গড়েন তারা। ক্যারিয়ারের ৩১তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে মাহমুদউল্লাহর থ্রোতে রানআউট হয়ে বিদায় নেন থারাঙ্গা।

তবে স্বম্তিতে নেই বাংলাদেশ। এক প্রান্ত আগলে রেখে ক্যারিয়ারের প্রথম ওয়ানডে সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন কুশাল মেন্ডিস। এমন অবস্থায় চন্দিমালকে শিকার করে টাইগার শিবিরে খানিকটা স্বস্তি আনলেন মোস্তাফিজ। এরপর সেঞ্চুরিয়ান মেন্ডিজকে ফেরান তাসকিন।

সিরিজের প্রথম ম্যাচ জিতে ইতিমধ্যে ১-০ তে এগিয়ে আছে সফরকারি বাংলাদেশ। এই মাঠেই স্বাগতিকদের ৯০ রানে হারানোর পর দ্বিতীয় ওয়ানডে জিতে এক ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ জয় নিশ্চিত করতে চায় টাইগাররা। মাশরাফির আশা প্রথম ম্যাচের ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ডাম্বুলাতেই সিরিজ জয় সম্ভব। লঙ্কানদের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ জেতার পর সেভাবে উদযাপন করেনি বাংলাদেশ। সিরিজ জিতে একবারে উদযাপন করবে সফরকারীরা। সেই হিসেবে কলম্বোতে শেষ ম্যাচ খেলার আগেই ডাম্বুলায় উদযাপনটা সেরে যেতে চায় টাইগাররা।

উইনিং কম্বিনেশন না ভেঙে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে আগের একাদশ নিয়েই মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। অপরদিকে শ্রীলঙ্কান একাদশে তিনটি পরিবর্তন এসেছে। একাদশে ঢুকেছেন নুয়ান কুলাসেকারা ও নুয়ান প্রদীপ আর অফ স্পিনার দিলরুয়ান পেরেরা। বাদ পড়েছেন লাহিরু কুমারা, সাচিথ পাথিরানা ও লাকশান সান্দকান।

বাংলাদেশ দল: মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহীম, তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ ও মোস্তাফিজুর রহমান।

শ্রীলঙ্কা দল: উপুল থারাঙ্গা (অধিনায়ক), দানুশকা গুনাথিলা, কুশল মেন্ডিস, দিনেশ চান্ডিমাল, আসেলা গুনারত্নে, মিলিন্দা সিরিবর্ধনে, থিসারা পেরেরা, দিলরুয়ান পেরেরা, সুরঙ্গা লাকমল, নুয়ান কুলাসেকেরা, নুয়ান প্রদীপ।






মন্তব্য চালু নেই