মেইন ম্যেনু

মাহিকে বাইকে নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন অপু

হুট করেই কড়ইতলার দিকে একটি বাইক আসতে শুরু করল। কিছুক্ষণের মধ্যেই স্পষ্ট হলো সেটা বাইক নয়, ছিল স্কুটি। একটা লাল রংয়ের স্কুটি ঘুরে বেড়াতে লাগল কড়ইতলা এলাকা। স্কুটির পেছনে বসা এক মোহময়ী তরুণী। ঘুরতে ঘুরতে আমরা যেখানে বসে ছিলাম তার কাছাকাছি স্কুটিটা আসতেই বিষয়টা পরিষ্কার হতে লাগল কেননা স্কুটি চালক হলুদ শার্ট ও চোখে কালো গগলস পরিহিত যুবককে একটু চেনা চেনাই মনে হচ্ছিল। আর যেহেতু তরুণী বারবার মুখ লুকোচ্ছিলেন সেহেতু একটি কনফিউজড হয়ে যাওয়াটাই স্বাভাবিক। তবে খুব অল্প সময়ের মধ্যেই স্কুটি চালক আর পেছনে বসা তরুণীর চেহারা পরিষ্কার হয়ে উঠল।

স্কুটির পেছনে মাহিয়া মাহিকে নিয়েই ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন স্বামী অপু। কেন ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন সেটাও জানা গেল একটু পর। তার আগে বলে নিই এসব ঘটনাই বিএফডিসির ভেতরের। বিএফডিসির ভেতরে কড়ইতলা পেরিয়ে গ্যারেজ এলাকায় সাইমন সাদিক ও মাহিয়া মাহি জুটির নতুন ছবি জান্নাতের শেষ লটের শুটিং হচ্ছিল। আর শুটিংয়ে আসার সময়ই অপুর স্কুটিতে চড়ে স্পটে এলেন মাহিয়া মাহি। স্কুটিতে কেন? অপু বললেন, ‘আসলে আমরা গাড়িতেই এসেছি। স্কুটিটা আসলে মাহির সহকারীর। শখ হলো ওকে (মাহি) নিয়ে একটু স্কটিতে নিয়ে ঘুরি, এইতো…। ঘুরলাম। ‘

জান্নাত চলচ্চিত্রে সাইমন সাদিক ‘ইফতেখার’ নামে অভিনয় করছেন। সাইমন জানালেন, ছবির শেষ লটের শুটিং চলছে। এরপরই গানের শুটিং ও ডাবিং শুরু হবে। আজকে আমাকে মাজার থেকে ধরে আনার পর পুলিশ হেফাজতে থাকার শটগুলো দিচ্ছি।-কালের কণ্ঠ






মন্তব্য চালু নেই