মেইন ম্যেনু

মান বাঁচাতে স্বামীকে খুন করলেন নায়িকা

কয়েকটি তামিল ও কন্নড় ছবিতে অভিনয় করে ভালোই নাম-ডাক হয়েছিল ২২ বছরের অভিনেত্রী শ্রুতি চন্দ্রলেখার। কিন্তু কয়েক দফা ঝড় তা উড়িয়ে নিয়ে যায়।

প্রথম স্বামী মঞ্জুনাথের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ৩৫ বছরের এস রোনাল্ড পিটার প্রিনজোর সঙ্গে আবার বিয়ে হয় শ্রুতির। পিটার একজন ব্যবসায়ী। তবে হাজার চেষ্টা করেও ব্যবসায় লাভের মুখ দেখতে পারছিলেন না তিনি। প্রথম ব্যবসায় লোকসান হওয়ার পর ব্যবসায়ী বন্ধু উমাচন্দ্র ও প্রিন্সনের সঙ্গে তিনি অনলাইনে চাল-ডাল বিক্রি শুরু করেন। কিন্তু এই ব্যবসাতেও লোকসান। এরপর উমা ও প্রিন্সন ব্যবসায় দেয়া অর্থ ফেরত চায়। টাকা রোজগারের জন্য পিটার ঠিক করেন পর্নো ছবি বানাবেন!

শুধু তাই নয় সে ভাবনা মাথায় আসতেই অভিনেত্রী স্ত্রীকে চাপ দিতে থাকেন তার পর্নো ছবিতে অভিনয়ের জন্য। সেই সঙ্গে গ্রুপ সেক্সে যোগ দেয়ার জন্যও চাপ দিতে থাকেন।

এরপরই পিটারের দুই ব্যবসায়ী সঙ্গী এবং শ্রুতি মিলে পিটারকে খুন করার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা অনুযায়ী খাবারের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে তাকে খুন করা হয়। পরে একটি গাড়িতে করে তারা মৃতদেহটি দূরে নিয়ে গিয়ে করব দেয়।

পুলিশকে এসব তথ্য নিজের মুখেই জানান শ্রুতি চন্দ্রলেখা। গত বৃহস্পতিবার তিনি গ্রেপ্তার হন। বাকি দু’জন আগেই গ্রেপ্তার হয়েছেন।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই