মেইন ম্যেনু

চকরিয়া মিউনিসিপ্যাল স্কুলের সুধি সমাবেশ বক্তারা :

মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষা প্রশাসনের সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন

সকলের জন্য মানসস্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে হলে শির্ক্ষার্থী, অভিভাবক, শিক্ষক/শিক্ষিকা, শিক্ষা প্রশাসনের সাথে জড়িত সকলের সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন। কারন এ গুলো মানসম্মত শিক্ষার অপরিহার্য উপাদান, আর এ সমস্ত উপদানগুলির সাথে সুষ্ঠু সমন্বয় না হলে মানসম্মত শিক্ষা ছাড়াও অন্য যে কোন উদ্যোগও সফল হলে না। বর্তমান সরকার সকলের জন্য সর্বজনীন শিক্ষা নিশ্চিতে যথেষ্ঠ আন্তরিক। কিন্তু এখনও পুরো শিক্ষা ব্যবস্থায় জড়িত অনেকেই সমান ভাবে সক্রিয় নয়, সেকারনে শিক্ষা ব্যবস্থায় নানা ত্রুটি দেখা যাচ্ছে। আবার অভিভাবকদের অসচেতনতার সুযোগে সরকারী অনেক উদ্যোগ কাংখিত সাফল্য লাভ করছে না। তাই আগামী প্রজন্মের জন্য মানসম্মত  শিক্ষা নিশ্চিত করতে মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিকল্প নেই। ১৭ ডিসেম্বর, চকরিয়া মিউনিসিপ্যাল স্কুলের প্রাতিষ্ঠানিক পাঠদান কার্যক্রম শুরু উপলক্ষে আয়োজিত সুিধ সমাবেশে বিভিন্ন বক্তাগন উপরোক্ত মন্তব্য করেন।

বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি এস এম নাজের হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জাফর আলম বি.এ (অনার্স) এম.এ, উদ্বোধক হিসাবে বক্তব্য রাখেন চকরিয়া উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সাহেদুল ইসলাম। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এস.এম জাহাঙ্গীর আলম বুলবুল, চকরিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ আ.ক.ম গিয়াস উদ্দিন, চকরিয়া পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র জাহেদুল ইসলাম লিটু, বর্তমান কাউন্সিলর ছৈয়দ আলম।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন চকরিয়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও চকরিয়া সামাজিক উদ্যোক্তা পরিষদ সভাপতি হাজী আবু মোহাম্মদ বশিরুল আলম, নারী উদ্যোক্তা পরিষদের সভাপতি উম্মে কুলসুম মিনু, বক্তব্য রাখেন: স্কুলের সাধারণ পরিষদ সদস্য আমিনুল করিম, রাজনীতিবিদ এম.আর চৌধুরী, আরিফ মঈন উদ্দিন রাসেল, সাবেক কমিশনার আলহাজ্ব সামশুল আলম, চকরিয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।

স্কুলের প্রিন্সিপ্যাল শেখ আজাদ কামাল টিপু ও রেজাউল করিম সাজ্জাদ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে পাঠ করেন- কমিশনার পাড়া জামে মসজিদের পেশ ইমাম মৌলানা আবুল হোছেন, গীতা পাঠ করেন: বাবলী চৌধুরী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফাজর আলম মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিতে ও চকরিয়াকে শিক্ষা বান্ধব নগরীতে পরিনত করতে যে কোন উদ্যোগেকে সকল প্রকার সহযোগিতা আশ্বাস দেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাহেদুল আলম মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে প্রশাসনের সকল সহযোগিতা ও সমর্থনের আশ্বাস দেন।Guest at opening session-1

বক্তাগন আরো বলেন বর্তমান তথ্য প্রযুক্তির যুগে একজন শিক্ষার্থী শুধুমাত্র একটি বিদ্যালয়ের ছাত্র/ছাত্রী নয়। তাদের জ্ঞান আহনের পরিধি এখন পুরো বিশ্ব এবং একই সাথে তাকে পুরো বিশ্বের সাথে প্রতিযোগিতায় সামিল হতে হয়। কিন্তু শিক্ষা ব্যবস্থাকে কিছু লোকের ব্যবসায়িক হাতিয়ার বানানোর কারনে এখন শিক্ষার্থীরা শুধু পরীক্ষা পাশকে মুখ্য বলে বিবেচনা করে। যার কারনে পিএসপি পরীক্ষা মতো প্রাথমিক শিক্ষায়ও প্রশ্নপত্র ফাঁস হয় আর কোচিং ও প্রাইভেট এর জালে সাধারন শিক্ষার্থীরা আটকে আছে।  এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য জানান চকরিয়া মিউনিপ্যাল স্কুলের উদ্যোগে শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের বাংলা-ইংরেজী ভাষায় প্রমীত উচ্চারণের ব্যবহার ঠিক রেখে আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর বিশ্ব মানের শিক্ষা প্রািতষ্ঠান হিসাবে গড়ে তোলার দৃঢ প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়, যেখানে ক্লাসেই সকল শিক্ষা সম্পন্ন করা হবে। এবং পাঠদানকে শিক্ষার্থীদেরকে কাছে আনন্দময় করে গড়ে তোলঅ হবে। যেখানে মুল শ্লোগান হচ্ছে “সন্তান আপনাদের, তাদের মেধাবী ও আলোকিত মানুষ গড়ার দায়িত্ব আমাদের”।

উল্লেখ্য ১৭ ডিসেম্বর, চকরিয়া মিউনিসিপ্যাল স্কুলের প্রাতিষ্ঠানিক পাঠদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রাক-প্রাথমিক, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যে ছিল নবাগত শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকগণের অংশ গ্রহণে কবিতা, ছড়া, আবৃত্তি ও দেশাত্মবোধক গান সহ মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।






মন্তব্য চালু নেই