মেইন ম্যেনু

মানবাধিকার কমিশনের এ কী কাণ্ড!

পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় বিভাগীয় সম্মেলন শেষে মানবাধিকার লংঘনের ঘটনা ঘটিয়েছে মানবাধিকার কমিশনের সদস্যরা। শনিবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে কুয়াকাটার লেবুরচরে পিস্তল ও শর্টগান দিয়ে সাগরের দিকে প্রায় শতাধিক রাউন্ড ফাঁকা গুলি করে তাঁরা। এর ফলে ওই এলাকার মানুষ আতঙ্কে ঘর থেকে বেড়িয়ে আসে। খবর পেয়ে কুয়াকাটা নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির এসআই সঞ্জয় মন্ডল পর্যটন করপোরেশনের ১০১ ও ১০২ নং কক্ষে তল্লাশি চালিয়ে দুটি পিস্তল, একটি শর্টগান ও তিনটি ম্যাগজিন উদ্ধার করেছে।

জানা গেছে, গভীর রাতে গোলাগুলির খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন বাড়ির বাহিরে চলে আসেন। স্থানীয়রা ধারণা করছিলেন হয়তোবা জলদস্যুদের সঙ্গে কোস্টগার্ডের গুলি বিনিময় হচ্ছিল। তাই তাঁরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে ১০/১৫ জনকে সাগরের দিকে গুলি করতে দেখেন। এর কারণ জিজ্ঞাসা করলে অস্ত্রধারীরা জানান- তারা পুলিশের লোক, ফায়ার করতে এসেছে। গুলি বেশি হওয়ায় তাঁরা এ কাজ করছেন।

এ ব্যাপারে কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান জানান, ‘অস্ত্রের লাইসেন্স নিয়ে যারা রাতের অন্ধকারে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করে তাঁরা দায়িত্বজ্ঞানহীন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে অস্ত্র ও লাইসেন্স আটক করা হয়েছে। কেন তাঁরা এমন ঘটনা ঘটিয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে ওসি জানিয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই