মেইন ম্যেনু

মাও ছেলের মতো অন্ধ: খালেদাকে সুরঞ্জিত

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে কটূক্তি করে রাজনৈতিক শিষ্টাচার লঙ্ঘন করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত।

তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে কটূক্তি করে রাজনৈতিক শিষ্টাচার লঙ্ঘন করেছেন, তা অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে অন্যথায় রাজপথে রাজনৈতিকভাবে জবাব দেয়া হবে।’

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউটে নৌকা সমর্থক গোষ্ঠী আয়োজিত চলমান রাজনীতি বিষয়ে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সুরঞ্জিত বলেন, ‘বিএনপির রাজনীতি হচ্ছে ইতিহাস বিকৃতির রাজনীতি এবং রাজনীতি বিকৃতির ইতিহাস। যা জিয়াউর রহমান শুরু করেছেন এবং তারই ধারাবাহিকতা রক্ষা করছেন খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান। এই আত্মঘাতী রাজনীতির পরিনতি খুবই করুন। পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের করুন পরিনতি এই আত্মঘাতী রাজনীতির কারণেই। যার ফলে সেখানে তালেবানের মত একটি জঙ্গি সংগঠনের সৃষ্টি হয়েছে।’

খালেদা ও তারেককে উদ্দেশ্য করে সুরঞ্জিত বলেন, ‘অন্ধ ছেলের মা-ও অন্ধ। তাদের মধ্যে শিক্ষার কোনো আলো নেই। “পাগলে কি না বলে ছাগলে কি না খায়”। ডেভিড ক্যামেরুনের কাছে বার্তা পাঠানো হোক যেন এই অসুস্থ  উন্মাদ (তারেক) বালকটিকে পাগলা গারদে পাঠানো হয়, যদি সেখানেও তার জায়গা না হয় তাহলে তাকে যেন বাংলাদেশে পাঠানো হয়। তা না হলে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর বাড়িতে পাগলা গারোদে মা ও ছেলেকে চিকিৎসা করানো হবে।’ এ নিয়ে গালাগালি ও পাল্টা গালাগালি করার দরকার নেই বলে উল্লেখ করেন সুরঞ্জিত।

সংগঠনের সহ-সভাপতি সাজ্জাদ হোসেনের সভাপতিত্বে আন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ফয়েজ উদ্দিন মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই কানু, সংগঠনের মহাসচিব হুমায়ূন কবির মিজি প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই