মেইন ম্যেনু

ভারতের গুগল বালিকা মেঘালির অবিশ্বাস্য রেকর্ড

১১ বছর বয়সী বিস্ময় বালিকা মেঘালি মালবিকার নখদর্পণে পুরো বিশ্ব। সম্প্রতি বিশ্বের এক হাজার নদীর নাম দ্রুততম আবৃত্তি করে রেকর্ড গড়েছে সে। এ রেকর্ডের ফলে তার জায়গা হয়েছে ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডসে (আইবিআর)।

বিস্ময় শিশু মেঘালির রেকর্ড থেমে নেই শুধু এই আবৃত্তিতে। বিস্ময় এই শিশু ফাঁকা মানচিত্রে বিশ্বের যেকোন দেশের অবস্থান বলে দিতে পারে; এমনকি সেদেশের বিস্তারিত ভৌগোলিক বৈশিষ্ট্যওবলতে পারে সে।

ইউরোপের তিনশ, যুক্তরাষ্ট্রের দুইশ, এশিয়ার চারশ ও আফ্রিকার একশসহ বিশ্বের সব প্রধান নদীর নাম মাত্র ৭ দশমিক ৯ মিনিটে মুখস্ত বলতে পারে এই বিস্ময়শিশু। এসব নদীর নাম এত কম সময়ে শুনে আইবিআর’র কর্মকর্তারা স্তব্ধ হয়েছিলেন।

এখানেই থেমে নেই মেঘালির বিস্ময়কর রেকর্ডের চাকা। মাত্র ৯ দশমিক ০৪ সেকেন্ডে এক হাজার শহরের নাম বলতে পারে সে। এর মধ্যে রয়েছে বিশ্বের ১৯৬টি দেশের রাজধানী ও নিজ দেশ ভারতের ৯৭টি শহরের নাম। এছাড়া বিশ্বের এক হাজার ভৌগোলিক সংস্থার নাম দ্রুততম সময়ে বলার রেকর্ডও রয়েছে তার দখলে। মাত্র ১১ দশমিক ২৮ মিনিটে বলা এই এক হাজার সংস্থার মধ্যে রয়েছে বিশ্বের প্রধান প্রধান পর্বতমালা, মালভূমি, দ্বীপ, সমুদ্রপথ ও মরুভূমি।

দেশটির বিভিন্ন টেলিভিশনের অনুষ্ঠানে দেখা যায় এই বিস্ময় শিশুকে। দেশটিতে ‘ভারতের গুগল বালিকা’ হিসেবে জনপ্রিয়তা বাড়ছে তার।






মন্তব্য চালু নেই