মেইন ম্যেনু

ভাইয়ের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন শামীম

এবার নিজের ভাইয়ের সঙ্গে উন্নয়ন কাজের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান।
‘নির্বাচনের কোনো চিন্তা নেই। জনগণের জন্য কাজ করে যেতে চাই।’ রনারায়ণগঞ্জ-৫ (শহর-বন্দর) আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতার এই ঘোষণা দেন তিনি।
বুধবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের গ্রিনলন গ্রাউন্ডে আয়োজিত এক দোয়া ও শুকরিয়া অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে এমন ঘোষণা দেন শামীম ওসমান।
নারায়ণগঞ্জে দীর্ঘ দিনের চলমান গ্যাস সঙ্কট নিরসনে সিদ্ধিরগঞ্জের গোদনাইলে গ্যাস লাইনের সাড়ে ১৬ ইঞ্চি পাইপ স্থাপন কাজের পুণরায় শুরু ও প্রয়াত সংসদ সদস্য নাসিম ওসমানের অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন হওয়ার পথ সুগম হওয়ায় এই দোয়া ও শুকরিয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সেলিম ওসমান বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জ থেকে অপরাজনীতি বন্ধ করতে হবে। কেউ ভালো কাজ করতে চাইলে তাকে বাধা দেয়া হয়। এতে নারায়ণগঞ্জবাসীর উন্নয়ন আটকে দেয়া হয়।’
তিনি বলেন, ‘আমি আগামীতে সংসদ সদস্য হতে চাই না। যদি আমি আগামীতে সংসদ সদস্য হতে চাই; তাহলে আমাকে অপরাজনীতি করতে হবে। আমি জনগণের গোলামী করতে এসেছি। আমি উন্নয়ন করতে চাই। নির্বাচনের কোনো চিন্তা আমার নেই। জনগণের জন্য কাজ করে যেতে চাই।’
বৃহস্পতিবার থেকেই সিদ্ধিরগঞ্জের গোদনাইলে গ্যাস লাইনের সাড়ে ১৬ ইঞ্চি পাইপ স্থাপনের কাজ শুরু হবে তিতাস গ্যাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নওশাদ ইসলামের এমন ঘোষণার প্রেক্ষিতে সেলিম ওসমান বলেন, ‘কাজটি শেষ হতে প্রায় ছয় মাস সময় লাগতে পারে। আর এ সময়টাতে শহরের বিভিন্ন রাস্তাঘাট খোঁড়াখুঁড়ির কারণে নগরবাসীকে যানজটের কবলে পড়তে হতে পারে।’
তিনি বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জের উন্নয়ন নারায়ণগঞ্জের মানুষই করবে। আপনাদের দৃষ্টি রাখতে হবে যাতে করে কাজ চলাকালে কেউ কোনো মামলা না করে। অপরাজনীতি হলে এর ভুক্তভোগী হবে নারায়ণগঞ্জের জনগণ।’
সেলিম ওসমান বলেন, ‘এই কাজটি প্রয়াত নাসিম ওসমান আরও এক বছর আগে শুরু করেছিলেন। কিন্তু একটি মহল মামলা দিয়ে কাজটি বাধাগ্রস্থ করেছে। এখন সবার সহযোগিতায় মামলার জটিলতা শেষ করে কাজটি আবার শুরু হয়েছে। আমি এর জন্য আপনাদের ধন্যবাদ জানাই।’
এ সময় সভাপতির বক্তব্যে শামীম ওসমান বলেন, ‘আমি আমার ভাইয়ের সঙ্গে উন্নয়ন কাজের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চাই এবং এটাই হওয়া উচিত। কে কার এলাকায় কতো বেশি কাজ করতে পারে। এতে অনেক আনন্দ পাওয়া যায়। আসুন সবাই মিলে আগে নারায়ণগঞ্জটাকে সাজাই। সমালোচনা করতে হয় করবেন। সেটা নির্বাচনের সময়।’
অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত তিতাস গ্যাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নওশাদ ইসলাম, নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের প্রশাসক আবদুল হাই, জেলা সিভিল সার্জন দুলাল চন্দ্র চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা, জেলা জাসদের সভাপতি এম এ সাত্তার, জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক আবুল জাহের, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম সাইফুল্লাহ বাদল, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুর রহমান, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক প্রবীর কুমার সাহা, আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী সংগঠনের সভাপতি হাজী নুরুউদ্দিন প্রমুখ।
অনুষ্ঠান শেষে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাদ্দকৃত একটি অ্যাম্বুলেন্স নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের জন্য জেলা সিভিল সার্জন দুলাল চন্দ্র চৌধুরীর কাছে হস্তান্তর করেন সেলিম ওসমান।
প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালের ২৩ নভেম্বর তৎকালীন নারায়ণগঞ্জ-৫ (শহর-বন্দর) আসনের প্রয়াত সংসদ সদস্য নাসিম ওসমান সিদ্ধিরগঞ্জর গোদনাইলে ১৬ ইঞ্চি গ্যাস পাইপ স্থাপন কাজের উদ্বোধন করেছিলেন। কিন্তু তিনি সেটা শেষ করে যেতে পারেননি।






মন্তব্য চালু নেই