মেইন ম্যেনু

বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল পান্থনিবাস

মানুষ মাত্রই ভ্রমনবিলাসী, সমগ্র বিশ্বে মনের মতো ঘুরতে যাওয়া এবং নিজের ভ্রমনের স্মৃতিটুকু সারা জীবনের স্মৃতির ফ্রেমে আটকে রাখার জন্য কত বিচিত্র স্থানেই না আমারা ভ্রমন করে থাকি। বিশ্বের অনেক ধনী ব্যক্তি তাদের ভ্রমনের জন্য বিলাসী, ব্যয়বহুল হোটেলের ব্যবস্থা করে থাকেন।

বিলাসবহুল, ব্যয়বহুল হোটেল বলতে বোঝায় দামি ইন্তেরিয়র, নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা, প্রশিক্ষিত কর্মী ও মজাদার খাবারের সমাহার। আর এ তালিকায় বিশ্বের সেরা যে হোটেলগুলো রয়েছে, তা নিয়ে এবারের লেখা।

১)রয়েল পেন্টহাউস স্যুট, প্রেসিডেন্ট উইলসন হোটেল, জেনেভা:
মূল্যঃ,০০০
জেনেভার হোটেল প্রেসিডেন্ট উইলসনের ‘রয়েল পেন্টহাউস স্যুট’ বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল হোটেল স্যুট। প্রতি রাত্রি ,০০০ উপরে গুনতে হয়। ১৭০০ বর্গমিটারের এ পেন্টহাউস থেকে পর্বত রেখাযুক্ত লেক জেনেভার দৃশ্য দেখা যায়, স্তিনয়ে পিয়ানো বাজানো যায়, এছাড়াও এখানে রয়েছে ১২ মার্বেল পাথরের তৈরি বাথরুম এবং নিশ্ছিদ্র রাত্রি যাপনের জন্য বেডরুমে বুলেটপ্রুফ গ্লাস।

২)তাই ওয়ারনের পেন্থাওস, ফোর সেজন্স, নিউইয়র্ক:
মূল্যঃ,৯৫৬
তাই ওয়ারনের পেন্থাওস হল নিউইয়র্ক শহরের সবচেয়ে বড় হোটেল স্যুট। এটার নকশা করেছেন আই এম পে এবং পেটের মেরিনো। ইহা থেকে সৌন্দর্য উপভোগ করার অন্যতম শিক্ষণীয় ক্ষেত্র। তারকাকৃতির উপকরণ ব্যবহার করা হয়েছে সারা কক্ষ জুড়ে, এমনকি হাতের তৈরি সুক্ষ বস্ত্রত, স্ত্যামকৃত এদেশে ভিনিসাসি মখমলে, চাইনিজ অনিক্স এবং জাপানিজ সিল্কেও। কাচের বারান্দা এবং মেঝে থেকে ছাদ পর্যন্ত তৈরি জানালা থেকে ৩৬০ ডিগ্রি এঙ্গেলে বাইরের দৃশ্য উপভোগ করা যায়।

৩)পেন্থাওস স্যুট, গ্র্যান্ড হিয়াত ক্যান হোটেল মারটিনেজ, ক্যান:
মূল্যঃ,৪১৬
গ্র্যান্ড হিয়াত ক্যান হোটেলের আছে একটি সমৃদ্ধ এবং দীর্ঘ ইতিহাস, যেখানে অনেক তারকারা পূর্বে ক্যান চলচিত্র উৎসবের সময় এই হোটেলে অবস্থান করত। আর হোটেলটির এক হাজার বর্গমিটারের পেন্টহউজে রয়েছে অন ডিমান্ড বেয়ারা ও বিলাসবহুল গসলের ব্যবস্থা। এটা ইউরোপের অন্যতম বৃহত্তম বড় স্যুট।

৪)দুই তলা স্কাই ভিলা, বাঁশজাতীয় কাসিনো রিসোর্ট, লাস ভেগাস:
মূল্যঃ,৫৩১
লাস ভেগাসের নাম শুনলেই কল্পনায় যা আসে, তার সব উপকরণই আছে এ হোটেলটিতে। এর সবচেয়ে আকর্ষণীয় কক্ষে রয়েছে দ্বিতল স্কাই ভিলা, জার জানালা দিয়ে দেখা যায় রাতের তারা কিংবা লাস ভেগাসের আলোকছটা। বিলাসবহুল সুইমিং পুল ছারাও এতে রয়েছে ফিটনেস ও ম্যাসেজ রুম, ড্রাই সউনা ও মিডিয়া রুম।

সুতরাং পরিশেষে বলা যায়, উপরে উল্লেখিত এসব পান্থনিবাস ছারাও বিশ্বে এরকম আরও সুন্দর, বিলাসবহুল, ব্যয়বহুল পান্থনিবাস রয়েছে। সারা বিশ্বের ভ্রমনপিপাসুদের কথা ভেবে বিভিন্ন পর্যটন প্রতিষ্ঠান হরেক রকমের হোটেলের ব্যবস্থা করে থাকে।

সুত্র: টেলিগ্রাফ।






মন্তব্য চালু নেই