মেইন ম্যেনু

নেইমারের পাশে মেসি-ম্যারাডোনা

বিশ্বকাপ শেষ নেইমারের

ষষ্ঠ বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে চরম একটা ধাক্কা খেয়েছে ব্রাজিল। কলম্বিয়ার বিপক্ষে কোয়ার্টার-ফাইনাল ম্যাচে পিঠে আঘাত পেয়ে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়েছে ব্রাজিলের সবচেয়ে বড় তারকা নেইমার। তার মেরুদণ্ডের কশেরুকায় চিড় ধরা পড়েছে।
আঘাত পাওয়ার পর সঙ্গে সঙ্গেই নেইমারকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।
তবে নেইমারের চোটটা অস্ত্রোপচার করার মতো গুরুতর নয় বলে জানিয়েছেন ব্রাজিল দলের চিকিৎসক রদ্রিগো লাসমার। কিন্তু সেরে উঠতে নড়াচড়া করতে পারবেন না বার্সেলোনার এই ফরোয়ার্ড।
“দুর্ভাগ্যবশত, সে খেলতে পারবে না।”
নেইমারের সুস্থ হয়ে উঠতে কমপক্ষে কয়েক সপ্তাহ সময় লাগবে বলে জানান লাসমার।
শুক্রবার কলম্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের নির্ধারিত সময় শেষের দুই মিনিট আগে প্রতিপক্ষের হুয়ান সুনিগার হাঁটু নেইমারের পিঠে লাগে। স্ট্রেচারে করে বার্সেলোনার এই তারকাকে মাঠের বাইরে নিয়ে যাওয়া হয়।
ওই ঘটনার কিছুক্ষণ পরই ষষ্ঠ শিরোপা জয়ের সারথী নেইমারকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার কথা জানায় ব্রাজিলের গণমাধ্যমগুলো।
এর আগে ম্যাচ শেষে ব্রাজিলের কোচ লুইস ফেলিপে স্কলারি বলেছিলেন, “হাঁটু দিয়ে তার পিঠের নিচের অংশে গুঁতো দেয়া হয়েছে এবং ব্যথায় সে কাঁদছিল। চিকিৎসক আমাদের যা বলেছেন তাতে আমি নিশ্চিতভাবেই বলতে পারি, তার সুস্থ হয়ে ওঠাটা সহজ হবে না।”
আগামী মঙ্গলবার বেলো হরিজন্তেতে জার্মানির বিপক্ষে ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে নামবে স্বাগতিক ব্রাজিল। দুই হলুদ কার্ডের নিষেধাজ্ঞায় পড়ে গুরুত্বপূর্ণ ওই ম্যাচে খেলতে পারবেন না ব্রাজিলের অধিনায়ক চিয়াগো সিলভাও।

## নেইমারের পাশে মেসি-ম্যারাডোনা
পিঠে প্রচণ্ড আঘাত পেয়ে এবারের মতো বিশ্বকাপ শেষ হয়ে গেছে ব্রাজিল সুপারস্টার ফরোয়ার্ড নেইমারের। তার অসংখ্য ভক্ত এ ঘটনায় মর্মাহত। কেবল তা-ই নয়। লিওলেন মেসি, মেসুত ওজিল, বাস্তেইন শোয়েনস্টাইগার, পাতোর মতো তারকারা তার প্রতি জানিয়েছেন সহমর্মিতা।

শনিবার মেসির তার অফিসিয়াল ফেইসবুক পেজে নেইমারের সঙ্গে তোলা একটি ছবি পোস্ট করেছেন। সেখানে লিখেছেন, ‘দ্রুত সেরে ওঠো বন্ধু নেইমার’।

এদিকে নেইমারের এ ঘটনায় কিংবদন্তী ফুটবল তারকা দিয়াগো ম্যারাডোনাও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। ভেনেজুয়েলার একটি টেলিভিশনকে ম্যারাডোনা বলেছেন, ‘এটা ভয়াবহ একটা ব্যাপার। কেবল ব্রাজিলের জন্যই নয়, গোটা ফুটবল দুনিয়ার জন্যই এটা উদ্বেগের বিষয়।’

বিশ্বকাপ হচ্ছে নেইমারের দেশের মাটিতে। গোটা দেশের অনেক প্রত্যাশা ছিল তার ওপর। বাংলাদেশ সময় শনিবার রাত ২টায় কলম্বিয়ার বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচের ৮৮ মিনিটে মারাত্মক আঘাত পান তিনি। মেরুদণ্ডে প্রতিপক্ষ কলম্বিয়ার খেলোয়াড় জন জুনিগার আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। শেষ পর্যন্ত স্ট্রেচারে করে তাকে মাঠের বাইরে নিতে হয়।

ফোর্তালেসার স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে পরীক্ষার পর তার কোমরের হাড়ে চিড় ধরা পড়ে। ফলে বিশ্বকাপে আর মাঠে নামতে পারছেন না তিনি। ডাক্তার জানিয়েছেন, অস্ত্রোপচার করতে হবে না তবে মাঠে নামার কোনো সুযোগ নেই আপাতত।






মন্তব্য চালু নেই