মেইন ম্যেনু

দিনাজপুরের কিছু খবর

বিরামপুরে শীতার্তদের হাতে দিদউফ দিলো শীতবস্ত্র

দিনাজপুর দক্ষিনাঞ্চল উন্নয়ন ফোরাম (দিদউফ), বিরামপুর, হাকিমপুর, নবাবগঞ্জ ও ঘোড়াঘাট হত-দরিদ্র, ভাসমান, দুস্ত মুক্তিযোদ্ধা শীতার্তদের হাতে তুলে দিলেন শীতবস্ত্র।
সংগঠনের সভাপতি প্রফেসর ডাঃ নজরুল ইসলাম ও সাবেক সভাপতি বিগ্রেডার জেনারেল (অবঃ) মোঃ মাসুদ আলী খান, তত্ত্বাবধানে দিদউফের সাধারন সম্পাদক লায়ন মোঃ মোজাম্মেল হক, গত দুই দিনে এই চারটি উপজেলার  বিভিন্ন এলাকায় শীতবস্ত্র বিতরণ করেন।
এ সময় অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দিদউফ সদস্য মোঃ আব্দুস সামাদ, উপাধাক্ষ্য মোঃ সামছুল হুদা খান, মোঃ হাবিবুর রহমান হাবিব, ড. মুহাদ্দিস এনামুল হক, মোঃ মাহমুদুল হক মানিক, অধ্যক্ষ মোঃ মিজানুর রহমান মিজু, সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ তরিকুল ইসলাম, অধ্যক্ষ মোঃ মাহাবুবুর রহমান, মোঃ ফিরোজ কবীর চৌধুরী প্রিন্স প্রমুখ।

 

সাংবাদিক মতিয়ার রহমানের মৃত্যুতে
হিলি বন্দরে আমদানী রফতানী বন্ধ ছিল আধাবেলা
হাকিমপুর প্রেসকাবের সাবেক সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মতিয়ার রহমান (৫৮) রোববার ভোরে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন।
এদিকে, তার মৃত্যুতে হিলি স্থলবন্দরের ব্যবসায়ী ও কর্মচারীরা সকাল থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত এই বন্দর দিয়ে আমদানী রফতানী কার্যক্রম বন্ধ রাখে।
মরহুম মতিয়ার রহমান উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার, থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি, হিলি কাস্টমস সিএন্ডএফ এজেন্টস এসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি ছিলেন। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। বিকেল ৪টায় মুহাড়াপাড়ায় নামাজের জানাযা শেষে তাকে স্থানিয় করবস্থানে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হবে।

 

দিনাজপুরে কনকণে শীত : জনজীবন বিপর্যস্ত
দিনাজপুরে ঘন কুয়াশা আর কন কনে শীতের আক্রমন জীবন যাত্র বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। কয়েক দিন ধরে শৈত্য প্রবাহের সাথে সাথে বৃষ্টির মত কুয়াশা। গরীব-দুঃস্থ ও বাস্তহারা মানুষ শীত নিবারনে দিশেহারা হয়ে পড়েছে। শহর ও ক্ষেত ছেড়ে ঘর মুখী।
গত শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে শৈত্য প্রবাহ ও প্রচন্ড শীত এবং কুয়াশা। শীতের আক্রমন থেকে জীবন বাঁচাতে প্রানপন চেষ্টা করছে শীতার্থ মানুষ। রবিবার দিনাজপুরে তাপমাত্রা ছিল ১০.৫ ডিঃ সেঃ। দুপুরে একটি সুর্যের মুখ দেখা দিলেও সারা দিন কুয়াশায় ঢাকা ছিল সুর্য। গরীব-ছিন্নমূল মানুষ ঘর থেকে বের হতে পারেনি। দিনমজুরেরা কাজে এলেও দুপরের সাথে সাথে ঘরে ফিরে গেছে। বাস্তহারা মানুষ ছুটোছুটি করছে  শীত নিবারনের জন্য এক খন্ড কাপড়ের আশায় বিভিন্ন দাতা ব্যাক্তিদের দ্বারে দ্বারে।






মন্তব্য চালু নেই