মেইন ম্যেনু

আ.লীগ ইসলামের সেবক ছিল, আছে

বিএনপি রাজনৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে এখন লাশ নিয়েও রাজনীতি শুরু করেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ।

শনিবার দুপুরে ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরের বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনে ‘আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগ’ আয়োজিত বঙ্গবন্ধু কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের জম্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

হানিফ বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক পিয়াস করিমের লাশ নিয়ে রাজনীতি করতে চেয়েছিলো। তারা বুঝতে পেরেছে তাদের পায়ের তলায় মাটি নেই। তাই তারা লাশ নিয়েও টানাটানি করেছেন।’

বিএনপির প্রতি প্রশ্ন রেখে হানিফ বলেন, ‘আপনারা কি কারণে পিয়াস করিমের লাশ শহীদ মিনারে নেয়ার দাবি জানিয়েছেন, কোন যুক্তিতে? তিনি এমন কি ব্যাক্তি যে তার লাশ শহীদ মিনারে নিতে হবে। শহীদ মিনার পবিত্র জায়গা। লাশ প্রদর্শনের জায়গা নয়।’

‘পিয়াস করিম ন্যায়ের কথা বলতেন’, বিএনপি নেতাদের এমন দাবিকে নাকচ করে দিয়ে হানিফ বলেন, ‘সরকারের বিপক্ষে কথা বলা মানেই ন্যায়ের কথা নয়। বিএনপি সরকারের সময় আওয়ামী লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মীদের হত্যা করা হয়েছিল, তখন তারা কোথায় ছিলেন? তখন তো কোন অন্যায়ের প্রতিবাদকারী সুশীলসমাজ ছিল না।’

হানিফ বলেন, ‘অধ্যাপক পিয়াস করিম ছিলেন কুমিল্লা জেলা শান্তি কমিটির চেয়ারম্যান কুখ্যাত রাজাকার অ্যাডভোকেট আব্দুল করিমের পুত্র। যিনি একজন ভাষা সৈনিককে হত্যার উদ্দেশ্যে পাকিস্তানি সেনাবাহীনির হাতে তুলে দিয়েছিলেন।’ এসময় তিনি শহীদ মিনারে পিয়াস করিমের লাশ নিতে বাধা দেয়ার জন্য তরুণ ছাত্র সমাজকে ধন্যবাদ জানান।

সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহের সভাপতিত্বে আন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ, সহ-সভাপতি মতিউর রহমান মতি প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই