মেইন ম্যেনু

বিএনপির আন্দোলন কোন ঈদের পর আল্লাই জানেন : যোগাযোগমন্ত্রী

যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘প্রতিবার শুনি বিএনপি ঈদের পর সরকার পতনের আন্দোলনে নামবে, কিন্তু কোন ঈদের পর নামা হবে তা আল্লাই জানেন। এখন তো আষাঢ় মাস, একটু ডাক শুনলেই বলি, এই বুঝি বৃষ্টি এলো। কিন্তু আষাঢ়ের তর্জন-গর্জনই সার।’

সোমবার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি একেএম এনামূল হক শামীমের উপর গুলি বর্ষণকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তারা যতোই আন্দোলন করার হুঙ্কার দিক, আন্দোলন করার শক্তি, সামর্থ্য ও সাহস তাদের নেই। বিএনপি আওয়ামী লীগের কোনো ক্ষতি করতে পারবে না, গত পাঁচ বছর তার প্রমাণও হয়ে গেছে।’

এসময় সমাবেশে বঙ্গবন্ধুর স্ত্রী ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের নামে পদ্মাসেতুর নামকরণ করা হচ্ছে না বলেও তিনি জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী তাকে সিদ্ধান্তের ব্যাপারে জানিয়েছেন দাবি তিনি বলেন বলেন, ‘প্রধানমস্ত্রী ও বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা এবং শেখ রেহানা দুজনে মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, পদ্মাসেতুর নাম পদ্মাসেতুই হবে, কারো নামে হবে না।’

সম্প্রতি সংসদে জাতীয় পার্টির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ পদ্মাসেতু বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের নামে করার দাবি তোলায় মন্ত্রী এ কথা বলেন।

এসময় ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, ‘নামকরণ শুধু ইমোশনের বিষয় নয়, যুক্তিও আছে। এই মহিয়সী নারী কখনো ফার্স্টলেডির মতো হননি। সারাজীবন শুধু ত্যাগ করেছেন।’

ছাত্রলীগ সভাপতি এইচএম বদিউজ্জামান সোহাগের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলমের সঞ্চালনায় সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা হাছান মাহমুদ, আহমদ হোসেন, আফজাল হোসেন, পঙ্কজ দেবনাথ, মোল্লা মোহাম্মাদ আবু কায়সার, লিয়াকত সিকদার, মাহমুদ হাসান রিপন, মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন প্রমুখ।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই