মেইন ম্যেনু

বাপের বেটা হলে দেশে আসুন : মায়া

সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের প্রতি আহ্বান জানিয়ে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেছেন, ‘যদি বাপের বেটা হয়ে থাকেন, দেশে আসেন। তা না হলে বিদেশে বসে বড় বড় কথা বলবেন দেশের মানুষ সেটা মেনে নেবে না।’

তিনি বলেন, ‘তারেক রহমান নাকে খত দিয়ে, মুচলেকা দিয়ে বিদেশে গেছেন চিকিৎসার জন্য। তিনি কী অসুস্থ হয়েছেন জানি না। কিন্তু চিকিৎসার নামে বিদেশে বসে বছর বছর ধরে ষড়যন্ত্র করছেন। এখন আবার মক্কায় বসে শেখ হাসিনার সরকারকে হঠানোর ষড়যন্ত্র করছেন।’

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব পরিষদ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মায়া বলেন, ‘ত্রিশ লক্ষ শহীদের বিনিময়ে এ দেশ স্বাধীন হয়েছে। আমরা কাউকে পরোয়া করি না। কারো কথায় চলি না। কারণ এখন আমরা পরনির্ভরশীল জাতি না। কেউ সাহায্য করলো আর কেউ করলো না। এখন আমরা সেটা হিসাব করি না।’

বিদ্যুৎ পরিস্থিতির উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এই যে এখানে সাংবাদিক ভাইয়েরা আছেন, বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবেন। এবার ইফতারের ও সেহরির সময় কোন মসজিদে পানি ছিল না, কিংবা মুসল্লিরা ওজু করার পানি পায়নি। কারণ এটা সম্ভব হয়েছে বিদ্যুতের জন্য। শেখ হাসিনাকে আর একটু সময় দেন, লোডশেডিং নামে শব্দই ডিকশনারিতে থাকবে না।’

নেতাকর্মীদের শত্রুকে ছোট করে না দেখার আহ্বান জানিয়ে বিএনপির উদ্দেশে তিনি আরো বলেন, ‘এবার আইসেন। যদি আন্দোলনের নামে বায়তুল মোকাররম মসজিদ বা কোরআন শরীফে আগুন দেন, এক্কেবারে বারোটা বাজাইয়া দেবো।’

নিজ দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, ‘গণমাধ্যমে বেফাস কথা বলে পত্রিকার খোরাক হতে চান। তাদের সংযত ভাষায় কথা বলার আহ্বান জানাচ্ছি। বেফাস কথা বলে কোনো লাভ হবে না। সংগঠন চলবে সংগঠনের মতো।’

সংগঠনের সভাপতি মাসুদ খানের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য দেন- ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুল হক সবুজ, দপ্তর সম্পাদক শহীদুল ইসলাম মিলন প্রমুখ।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই