মেইন ম্যেনু

ফুলবাড়ীতে বিজিবি ও এলাকাবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার সমাধান : ৯ ঘন্টা পর যান চলাচল স্বাভাবিক

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ বিজিবি সদস্য নিহত হওয়ার জের ধরে সংঘর্ষের ঘটনায় আড়াই ঘন্টা বৈঠক শেষে বিজিবি ও স্থানীয় এলাকাবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার সমাধান হয়েছে।

গত শুক্রবার রাতে স্থানীয় প্রশাসনের উদ্যোগে বিজিবি’র উবর্ধন কর্তৃপক্ষ ও ক্ষতিগ্রস্থ বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী’র সমঝোতা বৈঠকের পর রাত ১১টার পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়েছে। বিজিবি রাতে মাইকে প্রচারের পর স্থানীয় প্রশাসনের মাধ্যমে বিজিবি’র হারানো গুলি ভর্তি ম্যাগজিনটি ফেরত দিয়েছে এলাকাবাসী।

সড়কে বড় বড় গাছ কেটে ফেলে অবরোধ সৃষ্টির গাছগুলো রাতেই তুলে ফেলেছে স্থানীয় প্রশাসন। বৈঠকে গুলিবিদ্ধ ও আহতদের চিকিৎসার ভার বিজিবি নিয়েছে। ফলে রাতেই স্বাভাবিক হয়েছে পরিস্থিতি। যান চলাচল শুরু করেছে দিনাজপুর-ঢাকা মহাসড়কে। বিজিবি কর্তৃক আটক এলাকার ৩ ব্যক্তিকের ফেরত দেয়া হয়।

গত শুক্রবার দুপুরে দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে বিজিবি’র দুই জওয়ান নিহত’র ঘটনাকে কেন্দ্র বিজিবি ও এলাকাবাসীর সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় একজন গুলিবিদ্ধসহ আহত হয় কমপক্ষে ১০ জন। এ ঘটনার পর সড়কে প্রায় শতাধিক গাছ কেটে ফেলে এবং আগুন জা¦লিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে স্থানীয় জনতা। বন্ধ করে দেয় দিনাজপুর-ঢাকা যোগাযোগ। এতে আটকা পড়ে যাত্রীবাহী বাস,মাল বোঝাই ট্রাকসহ  অসংখ্য যানবাহন। ফলে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয় ফুলবাড়ীতে।

গত শুক্রবার রাত ১০টায় হঠাৎ বিজিবি এলাকায় মাইকিং বের হরে। ঘোষণা দেয়,তাদের একটি গুলি ভর্তি ম্যাগজিন হারিয়ে গেছে। তা ফেরত দিলে ফেরতদাতাকে উপযুক্ত পুরস্কার প্রদান করা হবে। আর তা ফেরত না দিলে এলাকার ঘরে ঘরে তল্লাসি করা হবে।

এ মাইকিং এর পর স্থানীয় প্রশাসনকে মোবাইল ফোনে ম্যাগজিনটি ফেরত দেয়ার কথা বলে এক ব্যক্তি। পরে তা  প্রশাসনের মাধ্যমে ফেরত দেয়।  হারিয়ে যাওয়া ম্যাগজিন ফেরত পাওয়ার পর স্থানীয় প্রশাসনের উদ্যোগে শুক্রবার রাত ১০টায়ৎ বিজিবি ও এলাকাবাসী সমঝোতা বৈঠকে বসে। বিজিবি ফুলবাড়ী ২৯ ব্যাটালিয়নের সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত হয় এ বৈঠক।

বৈঠকে বিজিবি বিজিবির রংপুর রিজিওনাল সেক্টর কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল রবিউল ইসলাম, দিনাজপুর সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল হ্লানহেন মং, ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি’র অধিনায়ক লেঃ কর্নেল জাহিদুর রশীদ (পিএসসি), ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান, উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ খুরশেদ আলম মতি, পুলিশের সার্কেল (ফুলবাড়ী) আবু তারেক, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান মঞ্জুর কাদির,স্থানীয় এলুয়াড়ী ইউপি চেয়ারম্যান নবীউল ইসলাম, আলাদীপুর ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরা সহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

গতকাল শনিবার সকাল ১১ টায় উপজেলা প্রসাশন ও বিজিবি এর উদ্ধতন কর্তৃপক্ষ ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছেন।






মন্তব্য চালু নেই