মেইন ম্যেনু

ফরিদপুরে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্ম বাষির্কী পালন

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৬তম জন্ম বাষির্কীতে হুমায়ুন কবির স্মৃতি পুরস্কার পরিষদ, ফরিদপুর নজরুল স্মৃতি বিজড়িত কবি জসীমউদদীনের বাড়ির আঙিনায় সোমবার সকালে আবৃত্তি, আলোচনা সভা, সঙ্গীত, নজরুল জীবনী ও গ্রন্থ প্রদর্শনের আয়োজন করে।

প্রফেসর আলতাফ হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন হুমায়ুন কবির স্মৃতি পুরস্কার পরিষদের সম্পাদক- মফিজ ইমাম মিলন, আনসার উদ্দিন হাই স্কুলের কর্মকর্তা জাহিদুর রহমান, টিআইবির ফরিদপুর অঞ্চলের ব্যবস্থাপক মনিরুল হক, মৃণাল সেন চলচ্চিত্রের যুগ্ম সম্পাদক মৃধা রেজাউল প্রমুখ। আবৃত্তি করেন শেখ মারুফ ও গীতা দত্ত। নজরুল সঙ্গীত পরিবেশন করেন তৃপ্তি রায়, সুশীল কুমার সরকার, রশিদ আহমেদ তীতু।

বক্তারা বলেন, ফরিদপুরে নজরুল প্রথম আসেন ১৯২৫ সালের ১ মে বঙ্গীয় কংগ্রেসের অধিবেশনে যোগ দিতে। সে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহাত্মা গান্ধী, হোসেন শহীদ সোহরাওয়াদীসহ বহু নেতা। সে অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেছিলেন দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাস। স্বেচ্ছাসেবকদের মধ্যে কবি জসীমউদ্দীন। এর পরে নজরুল বৃহত্তর ফরিদপুরের মাদারীপুর, পাংশা, গোয়ালন্দে সভা-সমাবেশ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে থেকেছেন এবং আইন সভার সদস্যপদের জন্য স্বরাজের পক্ষে ফরিদপুর থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

৪০-এর দশকে ফরিদপুর শহরের মায়া সিনেমা হলে নজরুলের চিকিৎসার জন্য সলিল চৌধুরীর নেতৃত্বে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তহবীল সংগ্রহ করা হয়েছিল। সে সময় ফরিদপুরবাসী বিশেষ অবদান রাখে। নজরুল স্মৃতি বিজড়িত ফরিদপুরে জাতীয় পর্যায়ে নজরুল জন্ম বাষির্কী করার দাবি উত্থাপিত হয়।






মন্তব্য চালু নেই