মেইন ম্যেনু

প্রাইভেসি প্রিয় সাইফ-কারিনা

বলিউড তারকারা যখন তাদের ব্যক্তিগত খুঁটিনাটি বিষয়গুলো ভক্তদের সামনে তুলে ধরতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর দ্বারস্থ হন। তখন বলিউডের আরেক তারকা দম্পতি সাইফ-কারিনা নিজেদের ব্যক্তিগত বিষয়গুলোকে লোক চক্ষুর আড়ালে রাখতে পারলেই যেন আনন্দ পান। তাই ফেসবুক, টুইটার কিংবা অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে এই দম্পতির কোনো অ্যাকাউন্টও নেই।
কারিনার পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ছোট থেকেই ‘প্রাইভেসি’ প্রিয় কারিনা, নিজের ব্যক্তিগত বিষয়গুলোকে সব সময়ই লুকিয়ে রাখতে পছন্দ করেন। যা তিনি বিয়ের পরেও ধরে রেখেছেন।
কারিনার মতো এমন স্ত্রীর মন রক্ষার্থে সাইফ আলী খান নিজের একমাত্র টুইটার অ্যাকাউন্টটিও বন্ধ করে দিয়েছেন। এ প্রসঙ্গে সাইফ বলেন, আমি এখন আর টুইটারে নেই। অপ্রিয় হলেও সত্য, ভবিষ্যতে টুইটারে আমার ফেরার কোনো সম্ভাবনাও নেই। কারণ আমি ব্যক্তিগত গোপনীয়তায় বিশ্বাসী। তাই এধরনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে নিজের ব্যক্তিগত বিষয়গুলো প্রকাশ করতে চাই না।’
এদিকে কারিনা বলেন, ‘আমার দাদা রাজ কাপুর। তাই আমি এমন একটি পরিবার থেকে এসেছি, যেখানে তারকা মানেই ভিন্ন কিছু। তারা কখনও ব্যক্তিগত বিষয়গুলো ঘরের বাইরে নিয়ে আসে না।’
তিনি আরো বলেন, ‘টুইটার কিংবা ফেসবুকে কি আছে, আমি বুঝি না। সাইফ আমার মতো, তাই টুইটারে নিজের অ্যাকাউন্টটিও বন্ধ করে দিয়েছে।’
অন্যদিকে সামাজিক যোগোযোগ মাধ্যমগুলোর প্রতি সাইফ-কারিনা দম্পতির এ ধরনের দৃষ্টি ভঙ্গিকে সেকেলে বলেই মনে করছেন সমালোচকরা। তাদের মতে, যেখানে অমিতাভ কিংবা রেখার মতো তারকাদের টুইটার অ্যাকাউন্ট রয়েছে, সেখানে এটা মানা যায় না। সাইফ-কারিনা এ ধরনের কর্মকান্ডকে ‘প্রাইভেসি রোগ’ হিসেবেই দেখছেন সমালোচকরা।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই