মেইন ম্যেনু

প্রথম প্রহরে ফুল দেয়ার অনুমতি পেলেন খালেদা

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবসে ২১ ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরেই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। রাষ্ট্রীয় কর্মসূচি শেষ হওয়ার পর শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবেন তিনি।

রোববার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের সঙ্গে বিএনপির কয়েকজন নেতার বৈঠকের পর এ অনুমতি মেলে। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সার্বিক তত্ত্বাবধান করে থাকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। ২১ ফেব্রুয়ারির অনুষ্ঠানের ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকেন উপাচার্য। বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেস শাখার কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিয়ম অনুযায়ী ২১ ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে সবার আগে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন রাষ্ট্রপতি। এরপর প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, বিরোধীদলীয় নেতা ও মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা। এরপর কূটনীতিকেরা শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। বর্তমানে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বিরোধীদলীয় নেত্রী পদে নেই। তাই রাষ্ট্রীয় প্রটোকলে না থাকায় খালেদা জিয়াকে এ অনুমতি নিতে হয়েছে।

শ্রদ্ধা নিবেদনে খালেদা জিয়া সর্বোচ্চ ৬০ জন নেতাকর্মী নিয়ে ফুল দিতে পারবেন। বিএনপির সূত্রে জানা যায়, চেয়ারপারসনের সঙ্গে ১০০ জন নেতাকর্মী থাকার অনুমতি চাইলেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ৬০ জনের অনুমতি দেয়।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানুল্লাহ আমান, কেন্দ্রীয় নেতা খায়রুল কবির খোকন, নাজিম উদ্দিন আলম, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী অ্যানি প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই