মেইন ম্যেনু

‘পিএসএলে ফিক্সিংয়ে হতাশ হয়েই অবসর নিয়েছেন আফ্রিদি’

সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন পাকিস্তানের অলরাউন্ডার শাহিদ আফ্রিদি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে তাঁর বিদায়ের খবরে দুঃখিত বাঙালি কোচ অপরূপ চক্রবর্তী। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে রংপুর রাইডার্সে আফ্রিদির সঙ্গে কাজ করেছিলেন অপরূপ।

তিনি বলছেন, আফ্রিদি এখনই অবসর নিতে চাননি। পরবর্তী টি-২০ বিশ্বকাপে খেলতে চেয়েছিলেন তিনি। হয়তো পাকিস্তান প্রিমিয়ার লিগে স্পট-ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে হতাশ হয়েই অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই অলরাউন্ডার।

আফ্রিদি প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে নস্টালজিক অপরূপ। তিনি বলছেন, ‘আমাদের প্রথম আলাপ ঢাকায়। প্রথমদিন বেশি কথা হয়নি। আমি সহকারী কোচ এবং ভিডিও অ্যানালিস্ট হলেও, প্রধান কোচ জাভেদ ওমর আমাকেই নেট সেশন পরিচালনার দায়িত্ব দেন।

ফলে আফ্রিদির সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। খেলা, অনুশীলন ছাড়াও হোটেলে দীর্ঘ সময় কাটিয়েছি আমরা। বেশিরভাগ কথাই হত খেলা নিয়ে। এত বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার পরেও আফ্রিদির মধ্যে তারকাসুলভ কোনও ব্যাপারই নেই। রোজ সবার আগে অনুশীলনে হাজির থাকেন। খেলার পরেও ১৬ পাক দৌড়ন। দলের প্রত্যেককে প্রাপ্য সম্মান দেন। জুনিয়রদের অনুপ্রাণিত করেন। ক্রিকেটের প্রতি নিষ্ঠা এবং পেশাদারিত্বই তাঁকে সাফল্য এনে দিয়েছে।’

অপরূপের মতে, ব্যাটসম্যান আফ্রিদির চেয়ে অনেক এগিয়ে বোলার আফ্রিদি। ব্যাটিং করার সময় সব বলেই তুলে মারার চেষ্টা করতে গিয়ে বেশিরভাগ সময়ই বেহিসেবি শট খেলে আউট হয়ে যান তিনি।

কিন্তু বল করার সময় আফ্রিদি বদলে যান। তখন তিনি মাথা খাটিয়ে খেলার পরিস্থিতি অনুযায়ী বল করেন। ফিল্ডিং করার সময়ও নিজের ১০০ শতাংশ দেন আফ্রিদি। তাঁকে পাকিস্তান আরও ভালভাবে ব্যবহার করতে পারত।-এবিপি






মন্তব্য চালু নেই