মেইন ম্যেনু

পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক হচ্ছে

পল্লী এলাকার গরিব ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের সঞ্চয় ও অর্জিত লেনদেন রক্ষণাবেক্ষণ, ঋণ ও অগ্রিম প্রদান এবং বিনিয়োগের জন্য ‘পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক’ নামে একটি বিশেষায়িত ব্যাংক প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব সংসদে পাস হয়েছে। বুধাবর এ লক্ষ্যে ‘পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক বিল-২০১৪’ সংসদে পাসের প্রস্তাব করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। পরে এটি কণ্ঠভোটে পাস হয়।
‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্পের কার্যক্রমকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে এ ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। ব্যাংকটি দারিদ্র্য বিমোচনে ভূমিকা রাখবে বলে আশা করছে সরকার।
গত ৩১ মার্চ বিলটি সংসদে তোলেন অর্থমন্ত্রী। পরে এটি পরীক্ষা করে সংসদে প্রতিবেদন দিতে অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।
পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের অনুমোদিত মূলধন ১ হাজার কোটি টাকা রাখার বিধান রাখা হয়েছে। একই সঙ্গে পরিশোধিত মূলধন ২০০ কোটি টাকা রাখা হয়েছে।
পরিশোধিত মূলধনের ৫১ শতাংশ দেবে সরকার। ৪৯ শতাংশ দেবে ‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্পের অধীনে গঠিত সমিতি।
বিশেষায়িত এই ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদে ১৬ জন সদস্য থাকবে।
এই ব্যাংক প্রতিষ্ঠার বিষয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প দেশের গ্রামাঞ্চল দরিদ্র সুবিধাবঞ্চিত মানুষকে সঞ্চয়ে উদ্বুদ্ধ করা, তাদের দক্ষতা বৃদ্ধিসহ নারীর ক্ষমতায়ন এবং অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নের জন্য গ্রাম সংগঠন সৃজন, তাদের প্রশিক্ষণ প্রদান, তহবিলের যোগান এবং ঋণদানের মাধ্যমে দারিদ্র্য বিমোচনে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখে চলেছে।
“ওই কার্যক্রমকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপদান এবং তাদের সঞ্চয় ও অর্জিত অর্থ লেনদেন ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক নামে একটি বিশেষায়িত ব্যাংক প্রতিষ্ঠা এবং আনুষাঙ্গিক বিষয়াদি সম্পর্কে আইন ও বিধান প্রণয়ন করার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়।”



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই