মেইন ম্যেনু

পকেটের জোর থাকলে আপনিও ঘুরে দেখতে পারেন ডুবে থাকা টাইটানিক

বিশ্বের অগণিত অ্যাডভেঞ্চার-প্রেমী আর রোম্যান্টিকদের বহুকালের স্বপ্ন সফল হতে চলেছে শিগগির। ইতিহাসের সবথেকে বিখ্যাত জাহাজটিকে ঘুরে দেখার সুযোগ এবার হাতের মুঠোয়। কেবল পকেটে থাকতে হবে যথেষ্ট রেস্ত। তা হলেই আপনার পরনে ডুবুরির পোশাক আর আপনি অতলান্তিকের নীল জলে ডুব দিয়ে ফ্যাদম ফ্যাদম গভীরতা পেরিয়ে পৌঁছে যেতে পারেন সেই জ্যাক আর রোজ-এর অসমাপ্ত প্রেমের পটভূমিতে।

লাক্সারি ট্রাভেল কোম্পানি ব্লু মার্বেল প্রাইভেট আয়োজন করেছে তাদের ‘টাইটানিক ট্যুর’-এর। ২০১৮-এর মে মাসে এই সংস্থা তাদের নিজস্ব জাহাজে ভ্রমণকারীদের নিয়ে যাবে টাইটানিকের ডুবে যাওয়ার স্থানটিতে। সেখানে তিনদিনের বিশেষ ডাইভিং-এর বন্দোবস্ত থাকবে। প্রতিদিন তিন ঘণ্টা করে ডুব দিয়ে ঘুরে দেখায় সুষোগ দেওয়া হবে শতাব্দীপ্রাচীন সেই জাহাজের ধ্বংসাবশেষকে।

ব্লু মার্বেল-এর কর্ণধার এলিজাবেথ এলিস সংবাদমাধ্যম সিএনএন-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, সাগরের তলদেশে বিশাল এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে থাকা এই জাহাজের ধ্বংসাবশেষকে একেবারে কাছ থেকে দেখা যাবে তাঁদের এই প্রোজেক্টে। এই টাইটানিক সফরের অফিশিয়াল নাম ‘এক্সপ্লোর টাইটানিক’। শতবর্ষের অস্পৃষ্ট এই কিংবদন্তিকে এতটা কাছ থেকে দেখার সৌভাগ্য এর আগে সাধারণ মানুষের হয়নি। এই সফরের খরচ ধার্য হয়েছে জনপ্রতি ১০৫,১২৯ মার্কিন ডলার বা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৬৯ লক্ষ টাকা।
উল্লেখযোগ্য খবর, প্রথম যাত্রার সব টিকিটই বুকড। আগ্রহীরা অপেক্ষা করছেন ২০১৯-এর ভয়েজের জন্য।






মন্তব্য চালু নেই