মেইন ম্যেনু

‘নির্বাচন যখনই হোক, সংলাপ এখনি’ ——-নিল ওয়াকার

আগামী জাতীয় নির্বাচন ইস্যু নিয়ে আলোচনার মাধ্যমে আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকেই সিদ্ধান্তে আসতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘের ঢাকাস্থ আবাসিক সমন্বয়কারী নিল ওয়াকার। তবে সবদলের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের জন্য দ্রুত সংলাপের ব্যাপারে গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

নিল ওয়াকার বলেন, ‘নির্বাচন কবে নাগাদ হবে, এটা ঠিক করতে দুই দলকেই। তবে নির্বাচন যখনই হোক এখনই সংলাপ শুরু করতে হবে।’

‘নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড সৃষ্টি এবং সহায়ক পরিবেশ তৈরিতে সব দলের অংশগ্রহণে সংলাপ হতে হবে।’

রোববার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ডিপ্লোম্যাটিক করেসপনডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ডিক্যাব) এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।

সেখানে নিল ওয়াকার আরো বলেন, ‘৫ জানুয়ারির নির্বাচনের পর থেকে বাংলাদেশের দুই প্রধান রাজনৈতিক দলের কাছে জাতিসংঘ এই আহ্বান জানিয়ে আসছে। আজকের দিনেও জাতিসংঘ একই আহ্বান জানাচ্ছে।’

‘জাতিসংঘ মনে করে, অংশগ্রহণমূলক গণতন্ত্রের জন্য অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন জরুরি।’

সংলাপের ক্ষেত্রে বাইরের কেউ মধ্যস্ততা করবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে জাতিংসংঘের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘বাংলাদেশের প্রধান দুই রাজনৈতিক দলকেই এর সমাধান করতে হবে। বাইরের কেউ সমাধান করতে পারবে না।’

‘এজন্য দুই দলের ইচ্ছে ও উদ্যোগ থাকতে হবে। তবে দুই দল ও দুই নেত্রী চাইলে পরিবেশ সৃষ্টিতে জাতিসংঘ সহায়তা করতে পারে।’

বাংলাদেশের সংকট সমাধানে নিয়ে জাতিসংঘের কোনো উদ্যোগ আছে কি না- জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। তাই এটা নিয়ে কোনো মন্তব্য করা যাচ্ছে না।’

ডিক্যাবের সভাপতি মাঈনুল আলমের সভাপতিত্বে সেক্রেটারি আঙ্গুর নাহার মন্টিসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমের কূটনৈতিক রিপোর্টাররা মতবিনিময় সভায় অংশ নেন।






মন্তব্য চালু নেই