মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশ এগিয়ে ১০৫ রানে

দ্বিতীয় দিন শেষে পাকিস্তান ২২৭/১

খুলনা টেস্টের দ্বিতীয় দিনটি বাংলাদেশের জন্য হতাশারই হয়ে রইল। ম্যাচের প্রথম দিন শেষে ৪ উইকেটে ২৩৬ রান। সেখান থেকে বুধবার দ্বিতীয় দিনে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস গুটিয়ে গেছে ৩৩২ রানে। আর দিন শেষে মোহাম্মদ হাফিজের হার না মানা ১৩৭ রানের ওপর ভর রেখে পাকিস্তানিরা প্রথম ইনিংসে তুলে নিয়েছে ১ উইকেট হারিয়ে ২২৭ রান। ফলে বাংলাদেশ আপাতত ১০৫ রানে এগিয়ে থাকলেও খুব একটা স্বস্তিতে থাকছে না। কেননা, হাতে ৯ উইকেট থেকে যাওয়ায় বৃহস্পতিবার ম্যাচের তৃতীয় দিনে পাকিস্তানি নিংসন্দেহে প্রথম ইনিংসে রানের পাহাড় গড়ার চেষ্টায় থাকবে। আর সেই চেষ্টা ব্যর্থ করতে গেলে কঠিন মিশন নিয়েই মাঠে নামতে হবে বাংলাদেশের বোলারদের।

আগের দিনের সংগ্রহ নিয়ে খেলতে নেমে বাংলাদেশ যে খুব বেশি দূর যেতে পারেনি, এর কারণ পরের ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা। সাকিব-মুশফিক-অভিষিক্ত সৌম্য কিংবা বাকিরা কেউই বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। প্রথম দিন শেষে সাকিব অপরাজিত ছিলেন ১৯ রানে। বুধবার তিনি সাজঘরে ফিরে গেছেন আর মাত্র ৬ রান করে। মুশফিক ও সৌম্যের ব্যাট থেকে এসেছে যথাক্রমে ৩২ ও ৩৩ রান। সব মিলিয়ে বাংলাদেশকে ৩৩২ রানে বেধে দিয়েছে পাকিস্তানের বোলাররা।

অতিথি দলটির পক্ষে সর্বোচ্চ ৩ টি করে উইকেট নিয়েছেন পেসার ওয়াহাব রিয়াজ ও স্পিনার ইয়াসির শাহ।

খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে ব্যাট করতে নেমে ধীরে লয়েই শুরু করেছিল পাকিস্তান। ১১ ওভার অবধি অবিচ্ছিন্ন ছিল ওপেনিং জুটি। কিন্তু ১২তম ওভারে জুটি ভেঙেছেন বাংলাদেশের স্পিনার তাইজুল ইসলাম। তার বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছেন সামি আসলাম (২০ রান)। তবে অপর প্রান্তে সাবধানী ব্যাটিং করেছেন মোহাম্মদ হাফিজ। আর দিনের বাকিটা সময় তাকে যোগ্য সঙ্গ দিয়েছেন আজহার আলী।

দিনশেষে হাফিজ অপরাজিত ১৩৭ রানে। আজহার নট আউট রয়েছেন ৬৫ রান নিয়ে।

হাফিজ শেষ অবদি ক্যারিয়ারের অষ্টম টেস্ট সেঞ্চুরি বাগিয়ে নিয়েছেন।

অন্যদিকে, বাংলাদেশের বোলারদের ঘামে সিক্ত দিনে আজহার দেখা পেয়েছেন টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৯তম হাফ সেঞ্চুরির।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ : প্রথম ইনিংস, ৩৩২/১০, ওভার ১২০ (মুমিনুল ৮০, ইমরুল ৫১, মাহমুদউল্লাহ ৪৯, সৌম্য ৩৩, মুশফিক ৩২, সাকিব ২৫, তামিম ২৫; ওয়াহাব ৩/৫৫, ইয়াসির ৩/৮৬)

পাকিস্তান : প্রথম ইনিংস, ২২৭/১, ওভার ৫৮ (হাফিজ ১২৭*, আজহার ৬৫*, আসলাম ২০; তাইজুল ১/৪৩)

*দ্বিতীয় দিন শেষে বাংলাদেশ এগিয়ে ১০৫ রানে






মন্তব্য চালু নেই