মেইন ম্যেনু

তারেক রহমানকে নিয়ে সংসদে ‘ঝড়’

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে বিষেদগার করে বক্তব্যে মেতেছেন ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার দশম জাতীয় সংসদের দ্বিতীয় (বাজেট) অধিবেশনে পয়েন্ট অব অর্ডার এবং সাধারণ বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকার দলীয় নেতারা এ বিষেদগার করেন।

আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মিল্লাত বলেন, ‘তারেক রহমান মনে করেন তার বাবা জিয়াউর রহমান মেট্রিক পাস করে দেশের রাষ্ট্রপতি হয়েছেন। তার মা খালেদা জিয়া মেট্রিক পাস না করে দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। তিনি এসএসসি পাস করে ব্যরিস্টার হতে পারবেন না, এটা কি হতে পারে?’

তিনি বলেন, ‘তারেক রহমান নাকি রাজনীতিবীদ। তিনি নাকি চিকিৎসার জন্য লন্ডনে বসবাস করছেন। দেশে ফিরে আসতে পারছেন না। অথচ তিনি বিভিন্ন দেশ ঠিকই ভ্রমণ করছেন। আসল কথা হচ্ছে গ্রেপ্তারের ভয়ে তারেক দেশে ফিরে আসছেন না।’

তারেক রহমান অবার্চীন বলে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য সাবেক মন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, ‘তারেক রহমানের মতো অবার্চীনকে নিয়ে আমি কোনো কথা বলতে চাই না। তারপরও বলছি, আমরা কিছুদিন ধরে দেখছি বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান বিদেশে বসে বাংলাদেশের ইতিহাস বিকৃতি করছেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সম্পর্কে ইতিহাস বিকৃতি করছেন। এমনকি আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে নানান সময়ে কটূক্তি করছেন।’

তিনি বলেন, ‘গতকাল এ অবার্চীনের (তারেক রহমান) একটি বক্তব্য ছাপানো হয়েছে। যাতে ইতিহাস বিকৃতি করা হয়েছে। আমি বলবো এ অবার্চীনের বক্তব্য পত্রিকায় ছাপাবেন না। এতে করে জাতি উপকৃত হবে।’

জিয়াউর রমানের হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে খালেদা জিয়া ও সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী জড়িত বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের এ নেতা।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘জিয়াউর রহমানের হত্যাকাণ্ডের পর বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আড়াইবারের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু তিনি এ হত্যকাণ্ডের বিচার করেননি। কারণ কেঁচো খুঁড়তে গিয়ে সাপ বের হয়ে আসবে জেনে জিয়া হত্যার বিচার করেননি খালেদা জিয়া।’






মন্তব্য চালু নেই