মেইন ম্যেনু

টেকনাফে নিহত শফিক মেম্বারের দাফন সম্পন্ন ॥ ২৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা : আটক-২

টেকনাফের হ্নীলায় দূর্বৃত্ত্বের গুলিতে নিহত ইউপি মেম্বার ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি শফিক আহমদের নামাজে জানাযা শেষে স্থানীয় কবরস্থান মাঠে দাফন করা হয়েছে। রবিবার আছর নামাজের শেষে তাঁর জানাযা অনুষ্টিত হয়। জানাযায় হাজারো শোকার্ত মানুষ অংশগ্রহন করেছিলেন।

এদিকে এ ঘটনায় নিহতের ভাই বেলাল উদ্দিন বাদী হয়ে টেকনাফ মডেল থানায় ২৯ জনকে এজাহার নামীয় আসামী করে মামলা দায়ের করেছে। এছাড়া হত্যাকান্ডে জড়িত সন্দেহে দুই জনকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার রাত ৯টারদিকে ১০/১২ জনের একদল দুর্বৃত্ত রঙ্গিখালী ষ্টেশনে একটি চা দোকানে বসা অবস্থায় আকস্মিকভাবে তাকে উপুর্যপুরি গুলিবর্ষন করে। এসময় লোকজন জড়ো হওয়ার চেষ্টা করলে অস্ত্রধারীরা ১৫/২০ রাউন্ড এলোপাতাড়ী গুলিবর্ষণ করে আতংক সৃষ্টি করে চলে যায় বলে জানিয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীরা। জানা গেছে তার বুক, মুখ ও মাথায় গুলি লাগে। মুমুর্ষ অবস্থায় পুলিশের সহায়তায় শফিক মেম্বারকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন। এই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে রঙ্গিখালী এলাকার মোঃ আলমের ছেলে আবুল বশর (২৫) ও একই এলাকার শফিউর রহমানের ছেলে মোঃ জাহিদকে আটক করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে টেকনাফ মডেল থানার অফির্সাস ইনচার্জ আতাউর রহমান খোন্দকার সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
উল্লেখ্য হ্নীলা ইউনিয়নের রঙ্গিখালী এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে শফিক মেম্বার গ্রুপের সাথে প্রতিপক্ষ আব্দুল মজিদ প্রকাশ ভূলাইয়া বৈদ্য গ্রুপের সাথে দ্বন্ধ সংঘাত চলে আসছিল। এনিয়ে হত্যাসহ একাধিক মামলা ও পাল্টা মামলা রয়েছে।

টেকনাফে আইন শৃংখলা ও চোরাচালান প্রতিরোধ টাস্কফোর্স কমিটির সভা অনুষ্টিত
টেকনাফ উপজেলা আইন শৃংখলা ও চোরাচালান প্রতিরোধ টাস্কফোর্স কমিটির সভা ২৬ এপ্রিল সকাল ১১টায় টেকনাফ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্টিত হয় । টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শাহ মোজাহিদ উদ্দিন এতে সভাপতিত্ব করেন। টেকনাফ পৌর মেয়র হাজী মোঃ ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাওঃ রফিক উদ্দিন, সহকারী কমিশণার (ভুমি) জাহিদ ইকবাল, হোয়াইক্যং মডেল ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মাওঃ নুর আহমদ আনোয়ারী, বাহারছড়া ইউপি চেয়ারম্যান মাওঃ হাবিবুল্লাহ, হ্নীলা ইউপির আবুল হোসেন মেম্বার, সাবরাং ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হামিদুর রহমান, টেকনাফ সদর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নুরুল আলম, বিজিবি টেকনাফ সদর বিওপির কোম্পানী কমান্ডার সুবেদার ফজলুর রহমান, সেন্টমার্টিনদ্বীপের আবদুর রহমান মেম্বার, কমিটির সদস্য আলহাজ্ব জহির হোসেন এমএ, আলহাজ্ব সোনা আলী, আবুল কালাম, টেকনাফ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল বশর, মাস্টার জাহেদ হোসেন, কোস্টগার্ড প্রতিনিধি এতে বক্তব্য রাখেন। সভায় মানব পাচার, মাদকসহ ইয়াবা চোরাচালান, সার পাচার, ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন পর্যায়ে সভা অনুষ্টানের উপর গুরুত্বারোপ, প্রতি মাসে মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা, টেকনাফ সদর ইউপির সিরাজ মেম্বারের ছেলেকে মিথ্যা মামলায় জড়ানো, ইউনিফর্ম ছাড়া যত্র-তত্র গাড়ি থামিয়ে চেকিং, অভিযানের নামে আইডি কার্ড নিয়ে যাওয়া, বিশেষতঃ শাহপরীরদ্বীপ, সাবরাং ও নাইট্যংপাড়া অবৈধ ঘাট ইত্যাদি বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনাসহ ও বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এবারের সভায় সব চেয়ে উল্লেখযোগ্য আলোচনা ছিল- অবৈধ ঘাট ও রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ। টেকনাফ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল বশর, মাস্টার জাহেদ হোসেন ও আলহাজ্ব সোনা আলী বিষয়গুলো বিস্তারিতভাবে তুলে ধরেন।






মন্তব্য চালু নেই