মেইন ম্যেনু

টাইটানিক নায়িকার রুপ রহস্য

ইতিহাস বিখ্যাত সিনেমা ‘টাইটাইনিক’ মুক্তি পেয়েছিল সেই ১৯৯৭ সালে। ডিজাস্টার রোমান্টিক ধরণের এই সিনেমায় দারুণ অভিনয় করে ইতিহাসে জায়গা করে নেয়া মার্কিন সুন্দরী কেট উইন্সলেট সম্প্রতি নিজের রূপের গোপন রহস্য ফাঁস করেছেন নিজেই।

বর্তমানে তার বয়স চল্লিশ ছুঁই ছুঁই তবু তাকে দেখলে এখনও অনেকের মনে নবপ্রেমের দোলা দিয়ে যায়। সেই সময় থেকে বর্তমান পর্যন্ত তাঁর রূপের জাদুতে মুগ্ধ হয়েছে গোটা দুনিয়া।

টাইটানিকের ‘রোজ ডসন’ অর্থাৎ কেট উইনসেট তাঁর সৌন্দর্যের রহস্য জানাতে গিয়ে বলেছেন, প্রকৃতির শুদ্ধ বাতাস তাঁর ত্বকে জাদুকাঠির ছোঁয়া এনে দেয় বলে মনে করেন তিনি। তাই তিনি রাতে ঘরের জানালা খোলা রেখে ঘুমান। সঙ্গে অবশ্যই চাই সময়মতো ঘুম এবং প্রচুর পরিমাণে পানিপান।

নায়িকা তার ‘ভাইটাল স্ট্যাটিসটিক্স’ নিয়ে বিন্দুমাত্র বিচলিত নন। ‘জিরো ফিগার’-এর স্টাইলকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে কেটের দাবি, তার ‘কার্ভ’ নিয়ে তিনি খুবই খুশি। তা ছাড়া বাহ্যিক সৌন্দর্যের তুলনায় নিজের কেরিয়ার অনেক বেশি মূল্যবান তার কাছে।

যেখানে অনেক নায়িকাই বলেন যে মেক-আপে ত্বকের ক্ষতি হয়, সেখানে আরও এক ধাপ এগিয়ে কেট স্বীকার করেছেন যে তিনি মেক-আপ করতে পছন্দ করেন। মেক-আপ তাকে নারীত্বের অনুভূতি দেয়। তাঁর আত্মবিশ্বাস বাড়ায় অনেক গুণ।






মন্তব্য চালু নেই