মেইন ম্যেনু

জাতীয় সঙ্গীত গাইতে জানে না কলকাতা!

দুর্দান্ত একটা আইপিএল ফাইনাল আয়োজনের জন্য রবিবার ইডেন গার্ডেনে রসদের কোনও অভাব ছিল না। ৪১ রানে চেন্নাই সুপার কিংস-কে গুঁড়িয়ে দিয়ে দারুণ একটা ম্যাচও এদিন দর্শকদের উপহার দিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স।

কিন্তু ম্যাচ শুরুর আগে কয়েক সেকেন্ডের একটা ঘটনাই কালিমালিপ্ত করল ‘সুপার সানডে ফাইনাল’কে। ভারতের জাতীয় সঙ্গীতকে এমন বিকৃত করলেন একদল তরুণী, যা কি না আইপিএল-এর মতো বড় মঞ্চে গোটা ভারতকে লজ্জায় ফেলার জন্য যথেষ্ট।

গানের সুর তো ভুলই ছিল। এমনকী, বেশ কিছু কথাও ভুল গাইলেন তারা। সবচেয়ে লজ্জার বিষয়, ঘটনাটি ঘটল খোদ জাতীয় সঙ্গীতের রচয়িতা বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নিজের শহরেই।

ঘটনাটির পর পরই সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে তীব্র ধিক্কার জানানো শুরু হয়। সাবেক ভারতীয় স্পিনার বিষেণ সিং বেদী তো বলেই দিলেন, ‘প্লিজ হেল্প। আমাদের জাতীয় সঙ্গীতের সত্যিই কি এতটা মর্যাদাহানি প্রয়োজন? তার উপর কোথায়? না বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠা, মামলা-মোকদ্দমায় জজর্রিত ক্লাব ক্রিকেটের এক মঞ্চে।’

তার আগে ‘জে’ ব্লকের সামনে হঠাৎই নাচতে দেখা গেল একদল তরুণকে। তারা কী করছেন, কেন করছেন, এ সব প্রশ্ন তুলতে তুলতেই শেষ সমাপ্তি অনুষ্ঠান। তারা যে গানের সঙ্গে নাচলেন, ইডেনের কেউ শুনতে পেল কি না সন্দেহ। আর যেখানে নাচলেন, সেখান থেকে একটা ব্লক বাদ দিলে বাকিরা কিছুই দেখতে পেলেন না। সিএবি কর্তাদের এই প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে তারা জানিয়ে দেন, অনুষ্ঠান পরিচালনার দায়িত্বে ছিল আইএমজি সংস্থা। যে সংস্থার এক কর্তাকে ধরা হলে তিনি শুধু বললেন, ‘নো কমেন্টস।’






মন্তব্য চালু নেই