মেইন ম্যেনু

জঙ্গিদের কোনো ধর্ম নেই। তাদের কোনো দেশ নেই – প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

 প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আসেম সম্মেলনে যোগ দিয়ে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের সাথে আলাপচারিতায় জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের অবস্থান আরো স্পষ্ট হয়েছে। এছাড়া এসব নেতাদের সাথে আলাপে জলবায়ু, অভিবাসন, সহস্রাব্দ লক্ষ্য উন্নয়ন, এশিয়া অঞ্চলের সার্বিক উন্নতির বিষয় উঠে এসেছে।

আসেম সম্মেলনে যোগ দেয়ার পর ঢাকায় ফিরে গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জঙ্গিদের কোনো ধর্ম নেই। তাদের কোনো দেশ নেই। জঙ্গিদের কাছে অস্ত্র বিক্রি বন্ধ করার জন্য বিশ্ব নেতৃত্বের প্রতি আহ্বানও জানানো হয়েছে। বাংলাদেশ যে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে তাও তুলে ধরা হয়েছে এই সম্মেলনে।

প্রধানমন্ত্রী আসেম সম্মেলনের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে বলেন, এই সম্মেলনের মধ্য দিয়ে মার্যাদা উন্নত হয়েছে। আসেম সম্মেলনে আগত রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানরা কেউ ৫ জানুয়ারির নির্বাচন নিয়ে কোনো প্রশ্ন তুলেনি। বরং পুনরায় প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ায় তারা আমাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

আসেমের দশম শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে গত ১৫ অক্টোবর বুধবার ইতালির মিলানে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত শনিবার দেশে ফেরেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী আসেম শীর্ষ সম্মেলনে দেওয়া ভাষণে আন্তর্জাতিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে ধরেন।

সফরকালে তিনি ইতালির প্রধানমন্ত্রী মাত্তেরো রেনজি, গ্রীসের প্রধানমন্ত্রী এ্যান্তিনিওয়াস সামারাস, সুইজারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী স্টিফেন লোফভিন এবং ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন।

এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালির প্রেসিডেন্টের দেয়া ভোজসভায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে, জার্মান চ্যান্সেলর এ্যাঙ্গেলা মার্কেলের সঙ্গেও সাক্ষাত্ করেন। যোগ দেন প্রবাসী বাংলাদেশিদের দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানেও।



(পরের সংবাদ) »



মন্তব্য চালু নেই