মেইন ম্যেনু

গৃহহীন হয়েও সম্রাট যারা

বাদশা কিংবা সম্রাট হতে গেলে চাই রাজসিংহাসন আর রাজদরবার। কিন্তু সেই রৌম্যহর্ম রাজপ্রাসাদ আর সিংহাসন এখন কোথাও দেখা যায় না। আধুনিক এই ইট-কাঠ-পাথরের যুগে একের ভেতর বহুর রাজত্বে মানুষ এখন খুব ছোটো জায়গাতেও নিজস্ব ভূবন তৈরি করছে। কিন্তু যারা গৃহহীন তাদের কি তাহলে সেই ভূবন থাকতে নেই। অবশ্যই আছে, মনের রাজত্বে কেউ তো আর হানা দেবার নেই। তাইতো যুক্তরাষ্ট্রের কিছু গৃহহীন মানুষ রাস্তার জমিনেই তৈরি করেছেন নিজস্ব রাজদরবার ও রাজসিংহাসন। আর রাস্তায় এই জমিন তৈরিতে তারা ব্যবহার করেছে স্ট্রিট আর্ট।

লস অ্যাঞ্জেলসের স্ট্রিট আর্টিস্ট স্কিড রোবট রাস্তায় বিভিন্ন অংশে তৈরি করেছেন এমন অনেক রাজসিংহাসনসহ মানব মনের বিভিন্ন দৃশ্যপট। কোথাও তিনি একেছেন পরীর দেশ, আবার কোথাও তিনি একেছেন নিছকই কিছু চিহ্ন। আর এই চিহ্নগুলোর সঙ্গে গৃহহীন মানুষ যোগ হয়ে পেয়েছে এক ভিন্ন মাত্রা। এই স্ট্রিট আর্টগুলোর পাশে গৃহহীন মানুষদের সন্নিবেশের ফলে তাদের আর গৃহহীন মনে হচ্ছে না। মনে হচ্ছে যেন তারা একেক সাম্রাজ্যের রাজা নতুবা বাদশা।

একটি আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিনকে দেয়া সাক্ষাতকারে স্কিড রোবট জানান, ‘আমি সবসময়ই এমন কিছু করতে চেয়েছি যা মানুষের অন্তরের অন্তস্থলে বাস করে, অথচ তাকে ধরা কিংবা ছোয়া যায় না। পাশাপাশি মানুষ যাতে আমার কাজকে ভালোবাসে তাও খেয়াল রাখতে হয়েছে আমাকে।’

বাংলামেইলের পাঠকদের জন্য এবারে তুলে ধরা হলো স্কিডের আকা কিছু স্ট্রিট আর্ট, যেগুলো গৃহহীনদের সংস্পর্শে পূর্ণতা পেয়েছে।

s

d

f

g

h



(পরের সংবাদ) »



মন্তব্য চালু নেই