মেইন ম্যেনু

গণতন্ত্র বিপন্ন হয়ে পড়েছে : মির্জা ফখরুল

বাংলাদেশে গণতন্ত্র বিপন্ন হয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আয়োজিত এক স্মরণ সভায় এ অভিযোগ করেন তিনি।

রাজনীতিক ও চিন্তক নুরুল হুদা মির্জার তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নুরুল হুদা মির্জা স্মৃতি পরিষদ এ স্মরণ সভার আয়োজন করে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘বাংলাদেশের আজ যে পরিস্থিত, এখানে মানুষের কথা বলার অধিকার নেই। গণতন্ত্র বিপন্ন। মানবাধিকার ভূলুণ্ঠিত। এ অবস্থায় নুরুল হুদা মির্জাদের মতো ক্ষণজন্মা মানুষদের খুব প্রয়োজন ছিল।’

নুরুল হুদার স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘রাজনীতিতে আমার হাতেখড়ি নুরুল হুদা মির্জার কাছ থেকেই। তিনি ছিলেন সত্যিকার অর্থেই বিরল ব্যক্তিত্বের অধিকারী। এ রকম আত্মমর্যাদা সম্পন্ন লোক খুব কমই আমরা দেখেছি।’

ফখরুল বলেন, ‘সমাজকে বদলে দেয়ার জন্য, মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য নুরুল হুদা মির্জা তার জীবনকে উৎসর্গ করে গেছেন। তিনি সব সময় বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তা করতেন। কিন্তু তিনি বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল দেখতেন না। এ কারণে একটা কষ্টবোধ নিয়েই তাকে পৃথিবী থেকে বিদায় নিতে হয়েছে।’

সভায় উপস্থিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক মাহবুব উল্লাহ বলেন, ‘আমরা যদি বাংলাদেশের আদর্শ পুরুষদের নামের তালিকা তৈরি করি, তাহলে সে তালিকা খুব বেশি লম্বা হবে না। এই সংক্ষিপ্ত তালিকায় নুরুল হুদা মির্জার নাম উপরের দিকেই থাকবে। তিনি ছিলেন স্ব-আদর্শ ও নীতিতে বিশ্বাসী এক বিরল মনিষী।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বদরুদ্দিন ওমর, সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, হায়দার আকবর খান রনো, অধ্যপক নুরুল আহমেদ, সাংবাদিক কামাল উদ্দীন সবুজ, সৈয়দ আবদাল আহমেদ প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই