মেইন ম্যেনু

খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত বিএনপি

সিটি নির্বাচনে নিজের সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণায় নেমে ধারাবাহিক হামলার শিকার বেগম খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছে তার দল বিএনপি।

তিনবারের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ও বিরোধী দলের এই নেত্রীর জন্য পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সরকারের দায়িত্ব বলেও মনে করে দলটি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির মুখপাত্র আসাদুজ্জামন রিপন বলেন, ‘আমরা বিএনপি নেত্রীর নিরাপত্ত নিয়ে শঙ্কিত। যেখানে তার ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষীদের রাস্তায় ফেলে মারা হয়। সেখানে সরকারের উচিত তার আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। তিনবারের প্রধানমন্ত্রী ও বিরোধী দলীয় নেত্রীর জন্য নিরাপত্তা দেওয়া সরকারের দায়িত্ব।”

খালেদা জিয়া রাস্তায় নামায় সরকার বিচলিত হয়েছে দাবি করে বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, তিনি রাস্তায় বের হওয়ার পর বিনা নোটিশে জনগণ যেভাবে তার কথা শোনার জন্য ব্যাকুল হয়ে ভিড় জমাচ্ছেন তাতে সরকার বিচলিত হয়ে গেছে। সরকার তার পরাজয় আঁচ করতে পেরে বিএনপি নেত্রীকে রাস্তায় নামতে দিতে চাচ্ছে না।

সরকারকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ভয়-ভীতি দিয়ে বিএনপি নেত্রীকে প্রতিরোধ করা যাবে না। এমনিতেই তিনি আপোষহীন নেত্রী হননি। এটা বোঝা উচিত। খালেদা জিয়ার ওপর হামলার ঘটনায় গণতন্ত্র বিপন্ন ও নিরাপদে ভোট দেওয়া নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে বলেও মনে করেন রিপন।

খালেদা জিয়াকে হত্যার উদ্দেশ্যে বারবার হামলা হচ্ছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, হামলাকারীরা সশস্ত্র অবস্থায় ছিল। বিভিন্ন গণমাধ্যমে ছবিসহ তা প্রকাশিত হয়েছে। বিএনপি নেত্রীর ওপর হামলার পর সরকারের লাভের হার শূন্য। এতে তাদের ভোট আরও কমেছে। লাভ যা হওয়ার তা বিরোধী দলেই হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ইনাম আহমেদ চৌধুরী, সহ-দপ্তর সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম, আসাদুল করিম শাহীন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই