মেইন ম্যেনু

আলোচনা সভায় মোজাম্মেল হক

খালেদা জিয়ার নাজাত দিবস ১৫ আগস্ট

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ‘বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ১৫ আগস্ট নাজাত দিবস পালন করেন।’

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাক রিপোর্টার্স ইউনিটির গোলটেবিল মিলনায়তনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত ‘চলমান রাজনীতি- মক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির ঐক্য’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মোজাম্মেল হক বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া ও তার দলের নেতারা গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বানচাল করতে না পেরে তাদের মাথা খারাপ হয়ে গেছে। তাই তারা বিভিন্ন সময় আবল-তাবল বকছেন।’

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সমালোচনা করে মন্ত্রী বলেন, ‘সে আওয়ামী লীগকে কুলাঙ্গার বলার কে? আয়নার সামনে গিয়ে দাঁড়ান তাহলে নিজেকেই কুলাঙ্গার মনে হবে।’

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাহারা খাতুন বলেন, ‘আজ মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি ক্ষমতায় থাকার পরও স্বাধীনতা বিরোধী বেগম খালেদা জিয়া ও যুদ্ধাপরাধীদের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে হয়। খালেদা জিয়া দেশে জঙ্গিবাহিনী তৈরি করতে চায়।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। উন্নয়নের পথ রোধ ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ করার জন্য স্বাধীনতা বিরোধী চক্র এখনো ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। তাই মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। তাহলেই ২০৪১ সালে আমরা উন্নত দেশে পরিণত হবো।
শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এলে জনগণের পাশেই থাকেন। আর খালেদা ক্ষমতায় গেলে পকেট ভারি করেন। আর তার পুত্ররা বিদেশে টাকা পাচার করেন।’

সংগঠনের উপদেষ্টা হাসিবুর রহমান মানিকের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, সংগঠনের সভাপতি মো. জিন্নাত আলী খান জিন্নাহ, সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক, নারী নেত্রী ফাতেমা জামান স্বাথী প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই