মেইন ম্যেনু

কাঁচা পাট রপ্তানিতে বিশেষ সুবিধার নির্দেশ

দেশের কাঁচা পাট রপ্তানিকারকদের বিরাজমান সমস্যা সমাধান করে ঋণ সুবিধা বাড়াতে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বুধবার ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ সূত্র জানিয়েছে, মঙ্গলবার এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে নির্দেশনা বাস্তবায়নে সব তফসিলী ব্যাংককে নির্দেশ দিয়েছে। এতে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক জারি করা ২৪ এপ্রিলের কাঁচা পাট রপ্তানিকারকদের বিরাজমান সমস্যা সমাধান প্রসঙ্গে জারি নির্দেশনা অনুসরণ করতে বলা হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও অর্থ মন্ত্রণালয়সহ সরকারের বিভিন্ন সংস্থার নির্দেশনা ও সুপারিশের আলোকে সরকার কাঁচা পাট রপ্তানিকারকদের বিরাজমান সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে সহায়তা প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

সহায়তার মধ্যে রয়েছে- কাঁচা পাট রপ্তানিকারকদের ৩১ মার্চ ২০১৭ ভিত্তিক ঋণ হিসাবের স্থিতি নিরূপণপূর্বক দুই বছরের মরাটিয়াম সুবিধাসহ ১০ বছরের পরিশোধ সূচি প্রদান করে ব্লক হিসেবে স্থানান্তর করা হবে। এ ছাড়া হালনাগাদ লেজার বকেয়া এ সুবিধার আওতাভুক্ত হবে। ঋণঝুঁকি নিরসন কৌশলের আওতায় ব্যাংকার-গ্রাহক সম্পর্কের ভিত্তিতে জামানত গ্রহণ করতে হবে। ব্লক অ্যাকাউন্টে স্থানান্তরিত ঋণের ওপর কস্ট অব ফান্ড হারে সুদ আরোপ হবে। যারা এর আগে ব্লক সুবিধা গ্রহণ করেছেন তাদের ক্ষেত্রেও এ সুবিধা কার্যকর হবে।

প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়, ঋণগ্রহীতার চাহিদা এবং ব্যাংকার-গ্রাহকের সম্পর্কের ভিত্তিতে নতুন ঋণ প্রদানের বিষয়টি বিবেচনা করা হবে। কাঁচা পাট রপ্তানি ব্যবসায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যাদের ঋণ অনিয়মিত ও শ্রেণিবিন্যাসিত হয়েছে তাদেরকেও এ সুবিধার আওতায় আনার ক্ষেত্রে কেসের গুণাগুণ অনুযায়ী কেস টু কেস ভিত্তিতে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্তৃক বিবেচনা করা যেতে পারে। ঋণ হিসাবগুলো ব্লক অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর হয়ে গেলে বিচারাধীন মামলাগুলো সোলেনামার মাধ্যমে উভয়পক্ষ কর্তৃক নিষ্পত্তি করা যেতে পারে।






মন্তব্য চালু নেই