মেইন ম্যেনু

কক্সবাজার-সেন্টমার্টিন নৌপথে জাহাজ চালুর উদ্যোগ

নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, পর্যটকদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে কক্সবাজার থেকে সরাসরি সেন্টমার্টিনে আধুনিক নৌজাহাজ পরিচালনার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন নৌপরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান।

তিনি বলেন, পর্যটন নগরী কক্সবাজারকে ঢেলে সাজাতে সরকার নানামুখি উদ্যোগ নিচ্ছে। কক্সবাজারের পর্যটন শিল্পকে আরো বেশি সেবা সমন্বিত করতে সরকার কক্সবাজার-সেন্টমার্টিন নৌরুটে কক্সবাজার থেকে সরাসরি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন পর্যটকবাহী জাহাজ চালু করার উদ্যোগ নিয়েছে। এতে পর্যটকদের ভ্রমণ যেমন নির্বিগ্ন হবে পাশাপশি ৩ থেকে ৪ ঘন্টার মধ্যে সেন্টমার্টিন দ্বীপে পৌঁছা সম্ভব হবে।

বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) দুপুর ২টার দিকে কক্সবাজারের বাঁকখালী নদী খনন, বিআইডব্লিউটিএ পরিদর্শন বাংলোর নতুন ভবন এবং লাইট হাউজের আধুনিকায়ন ও নতুন কোস্টাল রেডিও স্টেশন কাজ উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের কাছে নৌপরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান এ কথা বলেন।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, এই প্রথম কোনো সরকারের উদ্যোগে দেশে নদী খনন কাজ কক্সবাজার থেকে শুরু হয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে নাব্যতা কমে যাওয়ায় বাঁকখালী নদী খননের কারণে মহেশখালী, চকরিয়া ও কুতুবদিয়ার দ্বীপাঞ্চলের মানুষ নৌপথে যাতায়াতের ক্ষেত্রে সুবিধা পাবেন।

এর আগে মন্ত্রী শাহজাহান খান বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় কক্সবাজার শহরের কস্তুরাঘাট এলাকায় বিআইডব্লিউটিএ পরিদর্শন বাংলোর নতুন ভবন উদ্বোধন করেন। দুপুর ১টায় তিনি কক্সবাজার শহরের নুনিয়ারছড়ায় বিআইডব্লিউটিএ জেটিঘাট এলাকায় বাঁকখালী নদীর খনন কাজের উদ্বোধন করেন। পরে মন্ত্রী দুপুর ২টায় কক্সবাজার লাইট হাউজের আধুনিকায়ন ও নতুন কোস্টাল রেডিও স্টেশনের কাজ উদ্বোধন করেন।

এ সময় কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত লেফটেনেন্ট কর্নেল ফোরকান আহমদসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বিকালে কক্সবাজার পাবলিক লাইব্রেরী ও ইন্সটিটিউটের শহীদ দৌলত ময়দানে শ্রমিক, কর্মচারী, পেশাজীবী ও মুক্তিযোদ্ধা-জনতার উদ্যোগে আয়োজিত এক সমাবেশে মন্ত্রীর যোগ দেয়ার কথা রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই