মেইন ম্যেনু

ওয়ানডেতে বাংলাদেশের হয়ে হ্যাটট্রিক করা বোলাররা

২৮ মার্চ দিনটি তাসকিন আহমেদের ক্যারিয়ারে উজ্জ্বল হয়ে থাকবে। হ্যাট্টিক অর্জন যে কোনও বোলারের কাছেই বড় পাওয়া। এদিন সেটিই পেয়ে গেছেন বাংলাদেশের গতি তারকা। একদম শেষ ওভারে তার বলে একে একে ফিরে গেছেন আসেলে গুরারত্নে, সুরঙ্গা লাকমল ও নুয়ান প্রদীপ।

রঙিন পোশাকে বাংলাদেশের পক্ষে তাসকিন পঞ্চম বোলার হিসেবে হ্যাট্টিক করার কৃতিত্ব দেখালেন। তার আগে আরও চারজন এই কৃতিত্ব দেখিয়েছেন। সর্বপ্রথম এই কীর্তি গড়েছিলেন শাহাদাত হোসেন ২০০৬ সালের ২ আগষ্ট। তিনি স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হারারেতে প্রথম হ্যাট্টিক করেন।

পরের হ্যাট্টিক করতে বাংলাদেশের চার বছর লেগে যায়। ২০১০ সালের ৩ ডিসেম্বর এটি করেন বাঁ-হাতি অফ স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক। তিনি মিরপুরে হ্যাট্টিক করেন সেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই।

বাংলাদেশের পক্ষে তৃতীয় হ্যাট্টিক করেন রুবেল হোসেন। তিনি এখন শ্রীলঙ্কা সফরে দলের সঙ্গেই রয়েছেন। রুবেল হ্যাট্টিকটি করেছিলেন ২০১৩ সালের ২৯ অক্টোবর, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে, মিরপুরে।

তাসকিনের আগের হ্যাট্টিককারির নাম তাইজুল ইসলাম। অন্যদের চেয়ে তার হ্যাট্টিকটি রেকর্ডের পাতায় অন্যরকম জায়গা দখল করে আছে। ২০১৪ সালের ১ ডিসেম্বর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হ্যাট্টিক করেছিলেন তাইজুল। সেটি ছিল আবার তার অভিষেক ম্যাচও। ওয়ানডে ক্রিকেট ইতিহাসে অভিষেকে কোনও বোলার হ্যাট্টিক করার কৃতিত্ব দেখাতে পারেননি। যেটা পেরেছিলেন তাইজুল।






মন্তব্য চালু নেই