মেইন ম্যেনু

এবার মামুনুলদের উজবেক পরীক্ষা

এশিয়ান গেমসে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সাফ চ্যাম্পিয়ন আফগানিস্তানকে ১-০ গোলে হারিয়ে উড়ন্ত সূচনা করেছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ ফুটবল দল। বৃহস্পতিবার গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে উজবেকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামবে লাল-সবুজ পতাকাধারীরা। এশিয়ার মহাশক্তিশালী এ দলটিকে হারাতে পারলেই দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত হবে বাংলাদেশের।

এর আগে এশিয়ান গেমসে কখনই দ্বিতীয় পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি বাংলাদেশ। দক্ষিণ কোরিয়ার ইনচিয়নের আনসানওয়া স্টেডিয়ামে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৫টায়। গত আসরে উজবেকিস্তানের সঙ্গেই ৩-০ গোলের হারের দুঃসহ স্মৃতি রয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দলের। তবে গত আসরের চেয়ে এবারের বাংলাদেশ দলটি অনেক শক্তিশালী। প্রথম ম্যাচে শক্তিশালী আফগানদের হারিয়ে বাংলাদেশের অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী।

গোয়াং স্পোর্টস কমপ্লেক্সে অনুশীলন শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘উজবেকিস্তান খুব শক্তিশালী প্রতিপক্ষ। এরপরও আমি আশাবাদী। দলের সবাই নিজের সেরা খেলাটা খেলতে পারলে লক্ষ্য পূরণ করাটা খুব একটা অসম্ভব নয়। এবার আমরা ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে থাকতে চাচ্ছি।’ এছাড়া তিনি আরো বলেন, ‘প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে আমাদের লক্ষ্য ছিল ভালো খেলা। লক্ষ্য অনুযায়ী আমরা খেলতে পেরেছি। তাই জয় পেয়েছি। আমাদের পরবর্তী ম্যাচ উজবেকিস্তানের সঙ্গে। ওরা অনেক অনেক শক্তিশালী দল। চেষ্টা থাকবে ওদের বিপক্ষে শতভাগ উজাড় করে দিয়ে পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়া।’

সবাই ভালো না খেললে লক্ষ্যে পৌঁছানো সম্ভব নয়ও বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। এক্ষেত্রে ক্রিকেটের উদাহরণ টেনে মামুনুল বলেছেন, ‘এটা ক্রিকেট না যে, একজন ভালো খেললেই ম্যাচ জেতা যায়। ফুটবল ১১ জনের খেলা। এখানে জিততে হলে ১১ জনকেই ভালো খেলতে হয়। আমরা চেষ্টা করব। কোচও আমাদের উজবেকিস্তানের জন্য প্রস্তুত হতে বলেছেন। আমরা প্রস্তুত আছি।’ ড্র করলেও শেষ ষোলোতে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে লাল-সবুজ শিবিরের। তবে তখন চেয়ে থাকতে হবে অন্য দলগুলোর ম্যাচ ও হংকংয়ের বিপেক্ষ শেষ ম্যাচের দিকে। অন্যদিকে উজবেকিস্তানকে হারিয়ে গ্রুপ জমিয়ে দিয়েছে হংকং। এতেই ‘বি’ গ্রুপে ৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে উঠে এসেছে বাংলাদেশ।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই