মেইন ম্যেনু

এবার কোহলিকে ছুড়ে ফেলে পুজারা বন্দনায় ভারত!

বেচারা কোহলি! নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড আর বাংলাদেশের বিপক্ষে কী দারুণ সময় গেল তার। শেষমেশ অজিদের বিপক্ষে এসে ছন্দপতন। একজন ক্রিকেটারের জীবনে দারুণ সুসময়ের পর এমন ছন্দপতন আসতেই পারে। কিন্তু, সেটা তো মানতে নারাজ ভারতীয় মিডিয়া কিংবা সমর্থকরা। তারা সম্ভবত আশা করেন, প্রতি ম্যাচেই একটি করে ডাবল সেঞ্চুরি না হোক, সেঞ্চুরি মারবেন ভারত অধিনায়ক! এই প্রত্যাশা মেটাতে না পারায় এখন কোহলিকে ধুয়ে দিচ্ছে ভারতীয় মিডিয়া! অন্যদিকে, রাঁচি টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি করে ভারতের নয়নের মনি চেতেশ্বর পুজারা।

অথচ গত বছরের শেষ দিকে এই কোহলিকে নিয়েই কত নাচানাচি হয়েছে ভারতে। কোহলিকে সর্বকালের সেরা বানানোর জন্য বাণী দিয়েছেন বিভিন্ন দেশের সাবেকরা। প্রশংসা পাওয়ার মতো যথেষ্ট পারফর্মেন্স করেছিলেন কোহলি। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২১১ রানের এক ইনিংস। এরপর ইংলিশদের বিপক্ষে ১৬৭ ও ২৩৫। এ ছাড়া আছে ৪০, ৪৯, ৬২, ৮১ রানের ইনিংস। বাংলাদেশের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে ২০৪ এবং ৩৮ রানের ইনিংস তাকে অপ্রতিরোধ্য ঘোষণা করেছিল। কিন্তু এরপরই খারাপ সময়টা দেখলেন কোহলি; সেটা খুব বাজেভাবেই!

অজিদের বিপক্ষে পুনে টেস্টের দুই ইনিংসে তার রান যথাক্রমে ০ এবং ১৩। ব্যাঙ্গালুরু টেস্টে দুই ইনিংসে ১২ এবং ১৫ রান করেন তিনি। তৃতীয় তথা রাঁচি টেস্টে প্রথম ইনিংসে করেন ৬ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নামার প্রয়োজন হয়নি ভারতের। এই রাঁচি টেস্টেই ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে এখন মহাতারকা বনে গেছেন চেতেশ্বর পুজারা। তাকে ঘিরে ছুটছে প্রশংসার তুবড়ি! কেউ তাকে একালের রাহুল দ্রাবিড় বলছেন। রবি শাস্ত্রী আবার উপমার দ্ব্যর্থহীন প্রয়োগ ঘটিয়ে বলেছেন, “পুজারা থাকা মানে এক প্লাটুন সেনাবাহিনী থাকা!” এই পুজারারও হয়তো একদিন খারাপ সময় আসবে। তখন তাকে নিশ্চিতভাবেই ছুড়ে ফেলে দেবে সবাই। যেভাবে এখন সমালোচনার বাণে বিদ্ধ হচ্ছেন বিশ্বের ভয়ংকরতম ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি!






মন্তব্য চালু নেই