মেইন ম্যেনু

পাল্টাপাল্টি বহিষ্কারে এনডিপির চেয়ারম্যান-মহাসচিব

পাল্টাপাল্টি বহিষ্কার করা হয়েছে ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এনডিপি) চেয়ারম্যান ও মহাসচিবকে। শুক্রবার রাতে দলের জরুরী সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক দলীয় ভাবমূর্তি অক্ষুণ্ণ রাখার স্বার্থে এবং দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে দলের মহাসচিব পদ থেকে আলমগীর মজুমদারকে বহিষ্কার করেন এনডিপি চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা। আর শনিবার দুপুরের দিকে চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজাকে ‘বহিষ্কার’ করে নিজেকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দাবি করেছেন এনডিপির মহাসচিব আলমগীর মজুমদার।

এবার চেয়ারম্যান মোর্ত্তজাকে এনডিপি থেকে ‘বহিষ্কার’
এবার ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এনডিপি) চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজাকে ‘বহিষ্কার’ করে নিজেকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দাবি করেছেন এনডিপির মহাসচিব আলমগীর মজুমদার। তবে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে মহাসচিব পদ থেকে আলমগীর মজুমদারকে বহিষ্কার করে খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা অংশ।
শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় কাকরাইলের ঈশা খাঁ হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলন ডেকে নিজেকে এনডিপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ঘোষণা করেন আলমগীর মজুমদার। সেই সঙ্গে দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব করা হয় আলী নূর সাজুকে।
পরে লিখিত বক্তব্যে এনডিপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আলী নূর সাজু বক্তব্যে বলেন, ‘বিএনপির সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বক্তব্যে জাতীয়তাবাদী ইসলামী মূল্যবোধে বিশ্বাসে শক্তি তার উপর হতাশ। এ কারণে এনডিপি মনে করে আপোষকামী রাজনৈতিক লক্ষ্যহীন জোট পরিত্যাগ করে প্রকৃত অর্থেই একটি সাচ্ছা দেশপ্রেমিক গণতান্ত্রিক ও ইসলামী মূল্যবোধে বিশ্বাসী শক্তি বিকল্প মোর্চা গঠনে ব্রতী হওয়া উচিৎ। তা না করতে পারলে দেশের সার্বভৌমত্ত্ব ও অস্তিত্ব বিপন্ন হবে।’

এনডিপির মহাসচিব আলমগীর মজুমদারকে বহিষ্কার
দলের ভাবমূর্তি অক্ষুণ্ণ রাখার স্বার্থে এবং দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এনডিপি) মহাসচিব পদ থেকে আলমগীর মজুমদারকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এনডিপির সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই বলে দলের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।
শনিবার সকালে এনডিপির পক্ষ থেকে এ সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গতকাল শুক্রবার রাত ১০টায় এনডিপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পার্টির জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার সভাপতিত্ব করেন এনডিপি চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা। সভায় গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য দেন পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট রবিউল ইসলাম সাগর, ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান চৌধুরী, জামিল আহমেদ, যুগ্ম মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, মো. মোকাদ্দেম হোসেন, অর্থ সম্পাদক খোন্দকার আমিরুল ইসলাম টুকু, দপ্তর সম্পাদক মো. ফরিদ উদ্দিন, প্রচার সম্পাদক রাজু আহমেদ, সহ দপ্তর সম্পাদক মো. মুসা, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ক্বারী আবু তাহের, সহ প্রচার সম্পাদক লোকমান হোসেন প্রমুখ।
সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় যে, দলীয় শৃঙ্খলা বহির্ভূত কর্মকাণ্ড করার জন্য এবং দলকে ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্য নানামুখী অপতৎপরতা ও ষড়যন্ত্রে লিপ্ত দলের মহাসচিব আলমগীর মজুমদার। দলের ভাবমূর্তি অক্ষুণ্ণ রাখার স্বার্থে এবং দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে পার্টির মহাসচিব পদ থেকে আলমগীর মজুমদারকে বহিষ্কার করা হলো। এই বহিষ্কার প্রাপ্তির পর এনডিপির সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই এবং এনডিপির কেন্দ্রীয় কমিটি, আন্তর্জাতিক কমিটি, জেলা কমিটি, উপজেলা কমিটিসহ সকল কমিটির নেতারা তার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ ও লেনদেন করলে সেটা তার নিজ দায়িত্বেই করবেন।
সভায় নেতারা দৃঢ়তার সঙ্গে ঘোষণা করেন, এনডিপি ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেত্রী সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ছিল, আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। যারা দলকে ক্ষতিগ্রস্তের জন্য ষড়যন্ত্র করবে তাদের এনডিপিতে কোনো স্থান নাই।

inShare

দলের ভাবমূর্তি অক্ষুণ্ণ রাখার স্বার্থে এবং দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এনডিপি) মহাসচিব পদ থেকে আলমগীর মজুমদারকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এনডিপির সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই বলে দলের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।
শনিবার সকালে এনডিপির পক্ষ থেকে এ সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গতকাল শুক্রবার রাত ১০টায় এনডিপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পার্টির জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার সভাপতিত্ব করেন এনডিপি চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা। সভায় গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য দেন পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট রবিউল ইসলাম সাগর, ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান চৌধুরী, জামিল আহমেদ, যুগ্ম মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, মো. মোকাদ্দেম হোসেন, অর্থ সম্পাদক খোন্দকার আমিরুল ইসলাম টুকু, দপ্তর সম্পাদক মো. ফরিদ উদ্দিন, প্রচার সম্পাদক রাজু আহমেদ, সহ দপ্তর সম্পাদক মো. মুসা, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ক্বারী আবু তাহের, সহ প্রচার সম্পাদক লোকমান হোসেন প্রমুখ।
সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় যে, দলীয় শৃঙ্খলা বহির্ভূত কর্মকাণ্ড করার জন্য এবং দলকে ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্য নানামুখী অপতৎপরতা ও ষড়যন্ত্রে লিপ্ত দলের মহাসচিব আলমগীর মজুমদার। দলের ভাবমূর্তি অক্ষুণ্ণ রাখার স্বার্থে এবং দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে পার্টির মহাসচিব পদ থেকে আলমগীর মজুমদারকে বহিস্কার করা হলো। এই বহিষ্কার প্রাপ্তির পর এনডিপির সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই এবং এনডিপির কেন্দ্রীয় কমিটি, আন্তর্জাতিক কমিটি, জেলা কমিটি, উপজেলা কমিটিসহ সকল কমিটির নেতারা তার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ ও লেনদেন করলে সেটা তার নিজ দায়িত্বেই করবেন।
সভায় নেতারা দৃঢ়তার সঙ্গে ঘোষণা করেন, এনডিপি ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেত্রী সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ছিল, আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। যারা দলকে ক্ষতিগ্রস্তের জন্য ষড়যন্ত্র করবে তাদের এনডিপিতে কোনো স্থান নাই।






মন্তব্য চালু নেই