মেইন ম্যেনু

একরাম হত্যাকাণ্ড : ভাড়াটে কিলার জাহাঙ্গীর গ্রেপ্তার

ফেনীর ফুলগাজী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি একরামুল হক একরাম হত্যার ঘটনায় আবুল হোসেন জাহাঙ্গীর (৪৫) নামে আরো এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টায় ফেনী সদরের শর্শদী ইউনিয়নের শর্শদী গ্রামের কান্দি পাড়া থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

জাহাঙ্গীর শর্শদী গ্রামের গজারিয়া কান্দি পাড়ার মতিউর রহমানের ছেলে ও ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সভাপতি। তিনি এলাকার নানা অপকর্মের সঙ্গে জড়িত। তিনি একরাম হত্যাকাণ্ডের ভাড়াটে খুনি বলে জানা গেছে।

একরাম হত্যা মামলায় গ্রেপ্তারকৃত অন্য আসামিদের জবানবন্দিতে আবুল হোসেন জাহাঙ্গীরের নাম উঠে আসে। আবুল হোসেনসহ এই পর্যন্ত পুলিশ র‌্যাব ২৪ জনকে আটক করেছে। এই হত্যাকাণ্ডে মূলপরিকল্পনাকারী ও বাস্তবায়নকারীর বেশিরভাগ আসামি র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে।

র‌্যাব-৭ ফেনী ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর আহমদ মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীরের গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এছাড়া গ্রেপ্তারকৃত উল্লেখযোগ্য আসামিরা হলেন- মামলার এজহারভুক্ত প্রধান আসামি বিএনপি নেতা মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী মিনার, কাউন্সিলর আব্দুল্লাহ হিল মাহমুদ শিবলু, টুপি বেলাল, জাহিদ চৌধুরী, আবিদুল ইসলাম আবিদ, কাজী শাহহান মাহমুদ, জাহিদুল ইসলাম সৈকত, মো. জিহাদ, শাহজালাল উদ্দিন শিপন, চৌধুরী নাফিজউদ্দিন অনীক, সাজ্জাদুল ইসলাম পাটোয়ারি সিফাত, হেলাল উদ্দিন।

উল্লেখ্য, গত ২০ মে ফেনীর একাডেমি এলাকার বিলাসী সিনেমা হলের সামনে প্রকাশ্যে ফুলগাজী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি একরামুল হক একরামকে গুলি করে ও পুড়িয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ সময় তার সঙ্গে থাকা সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান, স্থানীয় পত্রিকার সম্পাদক ও গাড়িচালকও অগ্নিদগ্ধ হন।






মন্তব্য চালু নেই