মেইন ম্যেনু

ইরানের খেলোয়াড়কে চড় মারলেন বাংলাদেশের কোচ!

বাংলাদেশের মানুষের অতিথি পরায়নতার জন্য সুনাম আছে বিশ্বে। কিন্তু রোলবল বিশ্বকাপে একি করলেন বাংলাদেশের কোচ সুনিল ধাগে? বুধবার মিরপুর ইনডোর স্টেডিয়ামে সেমিফাইনালের খেলা চলাকালে প্রতিপক্ষ ইরানের এক খেলোয়াড়কে যে চড় মেরে বসলেন তিনি! মেজাজ হারিয়ে এই কেলেঙ্কারি ঘটিয়ে ম্যাচের শেষে অবশ্য প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়েছেন সুনিল। কড়জোরে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন ইরানের খেলোয়াড় কাম কোচ রেজা জাফরীর কাছেও।

রোলবল বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইরানের বিপক্ষে বাংলাদেশ হেরেছে ৩-১১ গোলে। তাতে ফাইনালে খেলার স্বপ্ন ভেঙেছে স্বাগতিকদের। কিন্তু কোচ সুনিলের অখেলোয়াড়সুলভ আচরণ লজ্জায় ফেলেছে বিশ্বকাপ আয়োজকদের। যদিও তার দল রোলবল বিশ্বকাপের ইতিহাসে নিজেদের সেরা সাফল্যই পেয়েছে। এই প্রথম উঠেছিল সেমিফাইনালে। কিন্তু দলের এই সাফল্যে কোচের যা অবদান তা ম্লান অপ্রীতিকর এই ঘটনায়।

ইরানের সাথে সেমিতে স্কোরলাইন যতোটা অসহায়ত্বের কথা বলছে, মাঠে আসলে ততোটাই নজরকাড়া পারফরম্যান্স ছিল লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের। বাংলাদেশের ছোটখাটো গড়নের ছেলেরা হেরেছে মূলত ইরানের খেলোয়াড়দের দৈহিক গড়ন আর অভিজ্ঞতার কাছে। ইরান খেলেছেও তাদের স্বভাবসূলভ আক্রমণাত্মক খেলা। বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের আঘাত করেছে বারবার।

এই কারণেই হয়তো চটে গিয়েছিলেন বাংলাদেশের ভারতীয় কোচ সুনিল ধাগে। ম্যাচ শেষের কিছুক্ষণ আগের ঘটনা। ইরানের রেজা জাফরি গুরুতর ফাউল করে লাল কার্ড দেখলেন। স্বাগতিক কোচ সুনিল তখন হঠাৎই দৌড়ে গিয়ে রেজাকে চড় কষিয়ে দিলেন। খেলাশেষে সংবাদ সম্মেলনে কৃতকর্মের জন্য করজোড়ে ক্ষমা চাইলেন সুনিল। বললেন, এই কাণ্ডের দায় শুধু তার, বাংলাদেশ দলের নয়।

কিন্তু এই কথাটা বারবার উঠে আসছে যে বিশ্বকাপে এমন শেষ তো চায়নি বাংলাদেশ!






মন্তব্য চালু নেই