মেইন ম্যেনু

আসছে ১১ দলীয় ফ্রন্ট

রাজনীতির মাঠ গরম করতে আসছে আরো একটি নতুন জোট। শেখ শওকত হোসেন নিলু এবং আলমগীর মজুমদারের নেতৃত্বে গঠিত হচ্ছে ডেমোক্রেটিক ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট নামের এই জোট।

২০ দলীয় জোট থেকে কমপক্ষে ১১টি দল বেরিয়ে এসে এই ফ্রন্ট গঠিত হবে বলে জানা গেছে। জোটের অন্যতম শরিক দল হচ্ছে এনডিপি, মুসলীম লীগ, ন্যাপ ভাসানী এবং এনপিপি।

আগামী বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ ঘটবে ১১ দলীয় ফ্রন্টের।

বিএনপিকে ৭২ ঘন্টার যে আল্টিমেটাম দিয়েছিল এনডিপি, তার মধ্যে কোনো জবাব না দেওয়ায়  ২০ দলীয় জোট ছেড়ে যাচ্ছে দলটি।

বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দল থেকে  ১১ দল বিরেয়ে গেলে ৯ দল নিয়েই চলতে হবে বিএনপিকে। সংখ্যাগুরু থেকে সংখ্যালঘু জোটে পরিণত হলে বিএনপির জন্য আগামীতে রাজনৈতিক কর্মসূচি সফল করা কঠিন হবে বলে মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানিয়েছে, বিএনপির নেতৃত্বে ২০১২ সালের এপ্রিলে গঠিত হয় ১৮ দলীয় জোট। গত জুনে কাজী জাফর আহমদের জাতীয় পার্টি এবং সাম্যবাদী দলের একটি অংশ যোগ দেয় এতে। তার পর দুই মাস না পেরুতেই ভাঙন ধরেছে ২০ দলীয় জোটে। শুরু হয় ২৪ আগস্ট শেখ শওকত হোসেন নিলুর নেতৃত্বে ন্যাশনাল পিপলস পার্টির একটি অংশ বের হয়ে যাওয়ার মধ্য দিয়ে। একই পথ ধরে এনডিপির একটি অংশ।

নতুন জোটের সম্ভাব্য নাম ডেমোক্রেটিক ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট। এর আহ্বায়ক শেখ শওকত হোসেন বলছেন, শুধু ২০ দলীয় জোট ছেড়ে আসা দলগুলোই নয়, নতুন জোটে থাকছে সমমনা আরো কয়েকটি রাজনৈতিক দল।

তবে, এতে কিছু যায় আসে না বলে মনে করে বিএনপি। আগামী দিনে আন্দোলনে এর কোনো প্রভাবও পড়বে না বলে মনে করেন বিএনপির নেতাদের অনেকে।

২০ দলীয় জোটে ভাঙন ধরাতে এসব সরকারের একটি অপকৌশল বলেও মনে করেন বিএনপির নেতারা।






মন্তব্য চালু নেই